নিজস্ব প্রতিবেদক, বহরমপুর: বাইক না পাওয়ায় এক গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনা মুর্শিদাবাদের রেজিনগর থানার দাদপুর গ্রামে। মৃত গৃহবধুর নাম নুরিফা বিবি(১৯)। প্রায় বছর দুয়েক আগে তার বিয়ে হয় আলমগীর সেখ নামে গ্রামেরই এক যুবকের সঙ্গে। তাদের এক বছরের এক পুত্র সন্তানও আছে। মৃতার বাবা মুলুকচাঁদ সেখের অভিযোগ বিয়ের পর থেকেই পনের দাবীতে মেয়ের উপর অত্যাচার করত আলমগীর। দাবীমতো পনের টাকা পরিশোধ করলেও দাবি মত বাইক দিতে পারেননি পেশায় চাষি মুলুকচাঁদ। ফলে বাইকের পরিবর্তে দুইশতক জায়গা জামাইকে রেজিস্ট্রি করে দেন। তাতেও খুশি হয়নি পেশায় রাজমিস্ত্রি জামাই। ফের নুরিফার উপর শুরু হয় অত্যাচার। ফলে বাবার বাড়িতে ছেলেকে নিয়ে আশ্রয় নেয় নুরিফা।

গত ২৭ জুন গ্রামবাসীদের মধ্যস্থতায় ফের স্বামীর বাড়ি যায় সে। ২৮ জুন অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় তাকে দেখতে পান গ্রামবাসীরা। তারপর আশংকাজনক অবস্থায় তাকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার মৃত্যু হয় নুরিফার। মৃতার পরিবারের অভিযোগ বাইক দিতে না পারার মেয়ের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে জামাই আলমগীর ও তার পরিবারের লোকজন। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রেজিনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতার বাড়ির লোকজন। তবে অভিযুক্তরা সকলেই পলাতক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here