news internaional

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ১৯৪৬ সাল, গোটা বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছিল চেরনোবিলের পারমানবিক কেন্দ্রে ভয়াবহ বিস্ফোরণ। রাতারাতি মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছিল চেরনোবিল শহর সহ আশেপাশের গোটা অঞ্চল। আজও সেই স্থানে প্রবেশ নিষিদ্ধ। এসবের মধ্যেই ফের একবার তেজস্ক্রিয়তা ছড়াচ্ছে সেখান থেকে। রবিবার ইউক্রেনের প্রশাসনের তরফ থেকে এই কথা জানানো হয়।

ইউক্রেনের স্টেট ইকোলজিকাল ইনস্পেকশনের প্রধান ইয়োগর ফিরসব ফেসবুকে জানিয়েছেন, ‘একটা খারাপ খবর। চেরনোবিলের তেজস্ক্রিয়তার পরিমাণ স্বাভাবিকের থেকে বেড়ে গিয়েছে।’ এর কারণ ভয়াবহ দাবানল। সূত্রের খবর, প্রায় ২৫০ একর বনাঞ্চল জুড়ে ভয়াবহ আগুন লেগেছে। ইতিমধ্যেই ওই আগুন নেভানোর জন্য দমকল চেষ্টা শুরু করে দিয়েছে। চেরনোবিল পারমানবিক কেন্দ্রের খুব কাছেই এই আগুন।

ইউক্রেনের দমকল বিভাগের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, রবিবার সকাল পর্যন্ত অন্তত তেজস্ক্রিয়তা বৃদ্ধির কোনও লক্ষণ ছিল না। হঠাৎ করেই তা বাড়তে শুরু করে। ফলে ওই অঞ্চলে আগুন নেভাতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছেন দমকলকর্মীরা। সুরক্ষার খাতিরেই একটি নির্দিষ্ট দূরত্বের পর আর আগুন নেভাতে এগোতে পারছেন দমকলকর্মীরা। এখন যদি ওই পারমানবিক কেন্দ্রে আগুন পৌঁছে যায়, তো আরও বড় বিপর্যয় আসতে পারে বলে আশঙ্কা।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৬ সালে একটি রিয়াক্টরে বিস্ফোরণ হয়েছিল। তার জেরে ব্যাপক তেজস্ক্রিয়তা ছড়ায়। যদিও ২০০০ সাল পর্যন্ত বাকি তিনটি রিয়াক্টর চালু ছিল। তবে ২০১৬ সালে ওই বিস্ফোরিত রিয়াক্টরের ওপর একটি সুরক্ষা কবচ লাগানো হয়। তবে বর্তমানে ওই কেন্দ্রের ৩০ কিমি পরিধির মধ্যে মানুষের প্রবেশ নিষেধ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here