kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বীরভূম: অমর শহিদ রাজেশ ওঁরাওকে শ্রদ্ধা জানিয়ে এবং তার পরিবারকে সাহায্য করে শুরু হল হুল দিবস উদযাপন। মঙ্গলবার বীরভূম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সিউড়ি করিধ্যা যদু রায় মেমোরিয়াল অ্যান্ড পাবলিক ইনস্টিটিউট স্কুল মঞ্চে শুরু হল হুল দিবস পালনের কর্মসূচি। উপস্থিত ছিলেন ডব্লিউবিএসআরডিএ চেয়ারম্যান অনুব্রত মণ্ডল, বোলপুরের সাংসদ অসিত মাল, মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, বিধায়ক আব্দুর রহমান লিটন, জেলা পরিষদের মেন্টার অভিজিৎ সিংহ, জেলাশাসক মৌমিতা গোদারা, জেলা পুলিশসুপার শ্যাম সিং এবং শহিদ রাজেশ ওঁরাওয়ের বোন শকুন্তলা ওঁরাও ও জেঠতুতো ভাই অভিজিৎ ওঁরাও-সহ অন্যান্য বিশিষ্টজনেরা।

লাদাখ সীমান্তে আগ্রাসী চিনের হাতে আমাদের কুড়ি জন বীর সেনানি শহিদ হয়েছেন। তাদের মধ্যে ছিলেন বীরভূমের আদিবাসী পরিবারের সন্তান রাজেশ ওঁরাও। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে হুল দিবস উদযাপনের মঞ্চ থেকে শহিদ রাজেশের বাবা ও মায়ের নামে ২৫হাজার টাকার চেক এবং অন্যান্য উপহার সামগ্রী তুলে দেওয়া হয় বোন ও ভাইয়ের হাতে।

ভারতবর্ষের স্বাধীনতা সংগ্রাম প্রথম শুরু হয়েছিল তৎকালীন সাঁওতাল পরগনার ভগনাডিহি থেকে। আর তাতে নেতৃত্ব দেন সিধো, কানু-সহ অন্যান্য আদিবাসী নেতারা। সেটি ‘সাঁওতাল বিদ্রোহ’ নামে খ্যাত। সেই বিদ্রোহের দিনটিকে স্মরণ রেখে প্রতি বছর এই দিনে হুল দিবস পালন করা হয়ে থাকে। আর এই বিশেষ দিনে ভারত মাতার অন্যতম শহিদ বীর সন্তান তপশিলি উপজাতি পরিবারের ছেলে রাজেশ ওঁরাওকে স্মরণ করে তার পরিবারকে সংবর্ধনা দেওয়ায় পাশাপাশি সাহায্য করা হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here