ডেস্ক: অবশেষে কাটতে চলেছে মেডিকেল কলেজে সমস্যার জট। ১৩ দিন নাগাড়ে অনশনের মুখে চ্যালেঞ্জে পড়ে কলেজ কাউন্সিলের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে পড়ুয়াদের প্রায় সকল দাবিই মেনে নেওয়ার। সূত্রের খবর, কলেজ কাউন্সিলের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, নতুন হস্টেলের দুটি তলায় পুরনো ছাত্রদের রাখার ব্যবস্থা করা হবে। তবে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াই হবে সুনির্দিষ্ট কাউন্সিলিং-এর মাধ্যমে। কাউন্সিলের বৈঠকের পর এই বিবৃতি উঠে আসতেই কার্যত পড়ুয়াদের দাবিতে সিলমোহর পড়ে যায়। ফলে কাউন্সিলের তরফ থেকে লিখিত হলফনামা পেলেই এই আমরণ অনশন পড়ুয়ারা তুলে নেবে বলে জানিয়েছে।

বৈঠক শেষে জানানো হয়, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের পড়ুয়ারা যে তালিকা জমা দিয়েছিল, সেই তালিকা অনুসারেই নির্দিষ্ট কাউন্সিলিং হবে। এরপর যে নতুন হস্টেলে থাকার জন্য তারা আন্দোলন করছিল সেখানেই তাদের থাকতে দেওয়া হবে। একই সঙ্গে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, জীর্ণ অবস্থায় থাকা পুরনো হস্টেলেরও সংস্কার কার্য দ্রুত শুরু করা হবে। এছাড়াও জানানো হয়েছে, মেডিকেল কলেজের ৫ নং গেটের সামনে যে সুপার স্পেশালিটি ভবন তৈরি করা হচ্ছে, সেখানেও হস্টেলের ব্যবস্থা থাকবে। সেই ভবন তৈরি হয়ে গেলে বর্তমানে অনশনরত পড়ুয়াদের নতুন ভবনে স্থানান্তরিত করা হবে।

সূত্রের খবর, কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত পড়ুয়ারা ইতিমধ্যেই মেনে নিয়ে অনশনরত পড়ুয়ারা। ফলে লিখিতভাবে এই ঘোষণার অপেক্ষায় রয়েছে তারা। লিখিতভাবে এই ঘোষণা চলে এলেই যে কোনও সময় অনশন তুলে নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। পড়ুয়াদের এই জয়কে লাগাতার আন্দোলনের জয় বলেই দেখছেন বুদ্ধিজীবীরা। গতকাল গণকনভেনশনে সামিল হয়ে ছাত্রদের দাবিকে আরও জোরালো করে তুলেছিলেন কলকাতার বুদ্ধিজীবী মহল। টানা ১৩ দিন অনশনের পর অবশেষে জিতল মেডিকেল।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here