Home Featured লুকিয়ে দেখছিলেন পর্নোগ্রাফি, সেখানেই নিজের কামুক স্ত্রীকে দেখে চক্ষু ছানাবড়া স্বামীর

লুকিয়ে দেখছিলেন পর্নোগ্রাফি, সেখানেই নিজের কামুক স্ত্রীকে দেখে চক্ষু ছানাবড়া স্বামীর

0
লুকিয়ে দেখছিলেন পর্নোগ্রাফি, সেখানেই নিজের কামুক স্ত্রীকে দেখে চক্ষু ছানাবড়া স্বামীর
Parul

Highlights

  • স্বামীর কাছে কামুক স্ত্রীর ইচ্ছা পর্নোগ্রাফির মতো করে তার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করুক
  • ডাক্তার স্ত্রীর ইচ্ছানুযায়ী ঘরে বসে একদিন পর্নোগ্রাফি দেখছিলেন স্বামী
  • নীল ছবিতে কলকাতার ওই মহিলাকে দেখা যাচ্ছে অন্য পুরুষের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হতে

মহানগর ওয়েবডেস্ক: স্বামীর কাছে কামুক স্ত্রীর ইচ্ছা পর্নোগ্রাফির মতো করে তার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করুক স্বামী। তবে নিপাট ভদ্র লোক সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়র স্বামী সে সবে ঠিক অভ্যস্ত নন। অগত্যা নিজের ডাক্তার স্ত্রীর ইচ্ছানুসারে পর্নোগ্রাফির শরনাপন্ন হন ৩৩ বছর বয়সী ওই যুবক। তবে একা ঘরে একলা পর্নোগ্রাফি যে এমন ভয়াবহ ভাবে জীবনে ধরা দেবে তা বোধহয় ভাবতে পারেননি উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা ওই যুবক।

একেবারে সাদামাটা প্রেমপর্ব কাটিয়ে ২০১৮ সালে বিয়ের পিড়িতে বসেছিলেন উত্তরপ্রদেশের ইঞ্জিনিয়র যুবক ও কলকাতার ডাক্তার যুবতী। ৩ বছরের দাম্পত্য জীবনে সমস্যাও তেমন কিছু ছিল না। তবে স্বামীর কাছে কামুক স্ত্রীর চাহিদা ছিল নীল ছবির মতো করে যৌন সম্পর্ক। স্ত্রীর ইচ্ছানুযায়ী ঘরে বসে একদিন পর্নোগ্রাফি দেখছিলেন স্বামী। সেখানেই অতর্কিতে একটি ভিডিও দেখে ভ্রূ কুঁচকে ওঠে তাঁর। আরও ভালো করে পুরো ভিডিওটা দেখেন তিনি। না, কোনও ভুল নেই। ওই নীল ছবিতে যে মহিলাকে দেখা যাচ্ছে অন্য পুরুষের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হতে সে তাঁরই স্ত্রী। চোখের সামনে এই ঘটনা দেখে কিছুক্ষণের জন্য হতবাক হয়ে যান ওই যুবক। পরে স্ত্রীকে যে বিষয়ে প্রশ্ন করলে চমকে ওঠেন স্ত্রীও। পরে অবশ্য তিনি স্বীকার করেন পুরানো প্রেমিকার সঙ্গে এভাবে সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন তিনি।

গোটা বিষয়টি প্রকাশ হয়ে পড়ার পর স্ত্রীর থেকে ডিভোর্স চান ইঞ্জিনিয়র যুবক। তবে সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে যেতে রাজি হননি স্ত্রীও। ডিভোর্স মামলা দায়ের হয় আদালতে। যদিও বর্তমানে ওই স্বামী ও স্ত্রী কাউন্সেলিংয়ের মধ্যে রয়েছে। তবে এই ঘটনা যে ওই যুবকের মনে বড়সড় প্রভাব ফেলেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here