kolkata bengali news

মহানগর ডেস্ক: ভোটমুখী বাংলায় ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চাই’ এই স্লোগানকে হাতিয়ার করে নির্বাচনী প্রচারে নেমেছে তৃণমূল। আর সেই স্লোগানকে কটাক্ষ করতে গিয়ে গতকাল সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র ‘নারীবিদ্বেষী’ পোস্ট করে নেটিজেনদের তোপের মুখে পড়েন বাবুল সুপ্রিয়। নিজের গা থেকে ‘নারীবিদ্বেষী’ তকমা মুছতে পাল্টা পোস্ট করেন বাবুল। লেখেন, ‘আমারও দুটো মেয়ে আছে, তৃণমূলের কাছ থেকে নারীবিদ্বেষের পাঠ শিখবো না।’

গতকাল সন্ধ্যায় তৃণমূলের ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চাই’ স্লোগানকে কটাক্ষ করে বাবুল সুপ্রিয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর ছবি পোস্ট করে লেখেন, ‘মেয়েরা পরের ধন, এবার বিদায় করে দেওয়া হবে।’ বাবুলের এই পোস্টের পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের ক্ষোভ উগরে দেন নেটিজেনরা। নেটনাগরিকদের তোপের মুখে পড়ে কিছুক্ষনের মধ্যেই ওই পোস্টটি মুছে ফেলেন বাবুল। যদিও বাবুলের পোস্ট ততক্ষনে ভাইরাল!

বাবুলের এহেন ‘নারীবিদ্বেষী’ পোস্টের বিরোধিতা করে টুইট করেন তৃণমূলের ফিরহাদ হাকিম, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, ডেরেক ও’ব্রায়েন সহ একাধিক নেতানেত্রী। বিরোধীদের সমালোচনার মুখে পড়ে বাবুল সুপ্রিয় তাঁর নিজের ফেসবুক ওয়ালে লেখেন, ‘এটুকুই বলবো, এটি একটি বহুল প্রচারিত মিম। বেশ কিছুদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরছে। এটি আমার বানানো নয়, বা আমার কোনও বিবৃতিও নয়। আমার দুটি মেয়ে আছে, কাজেই তৃণমূল বা বাম কংগ্রেসের মতো অন্য কোনও রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে আমি ‘নারীবিদ্বেষী’র সংজ্ঞা শিখতে হবেনা।’

ডেরেক ও’ব্রায়ানের মন্তব্যকে তুলে ধরে বাবুল সুপ্রিয় লেখেন, ‘চেনা বামুনের পৈতে লাগেনা। বাংলার মা-বোনদের কাছে আমার ভাবমূর্তি এতটাই ভালো যে তোমাদের এই বিকৃত অপপ্রচারে কিছুই এসে যাবেনা।’ বাবুল নিজের হয়ে যতই সাফাই গাইতে আসুক, বাবুলের মন্তব্যে প্রবল অসন্তোষ প্রকাশ করেছে গেরুয়া শিবির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here