kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, পূর্ব মেদিনীপুর: রাস্তায় বসে এক ব্যক্তি চিৎকার করে বলে চলেছেন, ‘আমি কোভিড আক্রান্ত। আমি কী করব?’ ওই ব্যক্তির মুখ থেকে এমন কথা শুনে সেখানে বসে থাকা মানুষজনের আত্মারাম খাঁচাছাড়া হয়ে যাওয়ার জোগাড়। মুহূর্তে ফাঁকা হয়ে গেল গোটা এলাকা। দ্রুত খবর দেওয়া হয় প্রশাসনকে। নন্দকুমার থানার পুলিশ ও ব্লক স্বাস্থ্য কর্মীরা দ্রুত সেখানে পৌঁছে ওই ব্যক্তিকে সেখান থেকে নিয়ে গিয়ে পাঁশকুড়ার বড়মা হাসপাতালে ভর্তি করেন। এই ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর নন্দকুমারে। ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে পাঠানোর পাশাপাশি ব্লক প্রশাসন সিল করে দিল নন্দকুমার বাজার সংলগ্ন এলাকা।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে নন্দকুমারের ভবতারিণী মন্দিরে পাশে এক ব্যক্তিকে মনমরা অবস্থায় বসে থাকতে দেখেন সেখানে উপস্থিত লোকজন। তিনি কে এবং কেন এখানে বসে আছেন, তা জানতে চাওয়ার পর ওই ব্যক্তি জানান, হলদিয়াতে একটি ঠিকা কোম্পানিতে শ্রমিকের কাজ করেন তিনি। তিনি করোনা আক্রান্ত। কিন্তু তিনি কী করবেন, তা বুঝে উঠতে পারছেন না। ওই ব্যক্তির মুখ থেকে এমন কথা শোনার পর সেখানে উপস্থিত লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। মুহূর্ত ফাঁকা হয়ে যায় নন্দকুমার বাজার। খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। নন্দকুমার থানার পুলিশ ও ব্লক স্বাস্থ্য কর্মীরা দ্রুত সেখানে পৌঁছে ওই ব্যক্তিকে নিয়ে গিয়ে পাঁশকুড়া বড়মা হাসপাতালে ভর্তি করে দেন।

গোটা দেশের পাশাপাশি এই রাজ্যে দ্রুত হারে বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। আক্রান্ত সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি বাড়ছে আতঙ্ক। তেমন পরিস্থিতিতে প্রকাশ্যে বসে এক ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হওয়ার দাবি করায় রীতিমতো ভয়ের সঞ্চার হয় নন্দকুমার বাজারে। ঘটনার পর আতঙ্কিত লোকজন কী করবেন বুঝে উঠতে না পেরে অনেকে হাসপাতালে যোগাযোগ করেন। প্রশাসনের তরফে ওই এলাকা স্যানিটাইজ করার পাশাপাশি লোকজনকে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here