Home Featured আমি কাশ্মীরিদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর, দাবি পাক প্রধানমন্ত্রীর

আমি কাশ্মীরিদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর, দাবি পাক প্রধানমন্ত্রীর

0
আমি কাশ্মীরিদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর, দাবি পাক প্রধানমন্ত্রীর
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধি : নিজেকে কাশ্মীরিদের ব্যান্ড অ্যাম্বাসাডর বলে দাবি করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সেই সঙ্গে ব্যাখ্যা করলেন ভারত-পাক সম্পর্কের অবনতির কারণ। তাঁর মতে, দুই প্রতিবেশি দেশের সম্পর্ক তলানিতে ঠেকার কারণ ভারতের প্রধানমন্ত্রী এবং আরএসএস।

পাক অধিকৃত কাশ্মীরে নির্বাচন আসন্ন। ভারতের আপত্তি সত্বেও চলতি মাসের ২৫ তারিখে ভোট হবে সেখানে। দলের হয়ে প্রচারে সেখানে গিয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী। নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে তিনি বলেন, সমস্ত আন্তর্জাতিক ফোরামে আমি কাশ্মীরিদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর। সব ফোরামেই পাকিস্তান কাশ্মীরিদের কথা বলবে। ইমরান বলেন, আমার সরকার কাশ্মীরবাসীর বৈধ লড়াইয়ে তাঁদের পাশে আছে। তাঁর মতে, ২০১৯ সালের ৫ অগষ্টের পর কাশ্মীরবাসীর ওপর অত্যাচার বেড়ে গিয়েছে। তাঁর দাবি, মোদি সরকার ৩৭০ ধারা বাতিল করার পর কাশ্মীরিদের লড়তে হচ্ছে লাগামহীন অত্যাচারের বিরুদ্ধে।

এর আগে একাধিক আন্তর্জাতিক ফোরামে ৩৭০ ধারা রদ ও কাশ্মীরবাসীর ওপর অত্যাচারের ভুয়ো কাহিনি নিয়ে ভারত সরকারের বিরুদ্ধে নালিশ জানিয়ে এসেছে পাকিস্তান। তবে তাতে বিশেষ সুবিধা করতে পারেনি পাক সরকার। ইমরানের প্রতিক্রিয়ার পাল্টা দিয়েছে ভারতও।  ভারত সরকার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, কাশ্মীর এবং ৩৭০ ধারা দুটোই ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। বাইরের কোনও শক্তির হস্তক্ষেপ বরদাস্ত করা হবে না।

এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং আরএসএসকেও একহাত নিয়েছেন ইমরান।তিনি বলেন, অন্য দেশ তো বটেই, আরএসএসের মতাদর্শ ভারতের পক্ষেও বিপজ্জনক। কারণ, তারা শুধু মুসলিমদের আক্রমণ করে না মুসলিমদের পাশাপাশি খ্রিষ্টান, শিখ এবং নিম্নবর্ণের হিন্দুদেরও আক্রমণ করে। কারণ আরএসএস এদের দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক মনে করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here