মহানগর ডেস্ক: ভারতবর্ষের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক অস্থিরতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে গান বেঁধেছেন টলিউডের শিল্পীরা। বৈচিত্র্য ও ভালবাসার দেশ ভারতকে সুকুমার রায়ের ভাষায় ‘একুশে আইনে’-এর হাত থেকে বাঁচাতেই প্রতিবাদী শিল্পীদের কণ্ঠে গর্জে উঠেছে এই গান। গানটির মূল কথা ‘আমি অন্য কোথাও যাব না, আমি এই দেশেতেই থাকবো।’ সুরের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কথাগুলি যেন বলা হয়েছে এই গানে। শিল্পীরা এই গানের মাধ্যমে শুধু বাঙালি হিসেবে নয়, ভারতবাসী হিসেবে প্রতিবাদ করছেন মিথ্যা ও ঘৃণার রাজনীতিকে।

এই গান শুনেই বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন বিজেপি’র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। গানটির মধ্যে রাজনীতি খুঁজে পেয়েছেন তিনি। শিল্পীদের ‘রগড়ে’ দেওয়ার হুমকিও দিয়েছেন। দিলীপ ঘোষের এহেন বিতর্কিত মন্তব্যে টলিউড যখন তোলপাড়, তখন এই গান টলিউড পেরিয়ে পাড়ি দিল বলিউডের অলিন্দে।বলিউডের বিখ্যাত সুরকার বিশাল দাদলানি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল থেকে টলিউডের শিল্পীদের গাওয়া এই বাংলা গানটি আপলোড করেছেন। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘অসাধারণ একটি গান, বাংলা না জানলে সাবটাইটেল পড়ে নিন।’ ভিডিয়োটি আপলোড করার সঙ্গে যোগ করেছেন গানটির গায়ক, গীতিকার, সুরকার, অভিনেতাদের নামও। বহুল চর্চিত এই গানটি শেয়ার করে পশ্চিমবঙ্গবাসীর মন কেড়েছেন বিশাল।

প্রসঙ্গত, ‘অন্য কোথাও যাব না আমি এই দেশেতেই থাকবো’, গানটিতে সরাসরি কোনও রাজনীতি যোগ নেই। তবে, স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে একদল মানুষ প্রতিবাদ করছেন। বাম মনোভাবাপন্ন শিল্পীরা একযোগে বানিয়েছেন এই প্রতিবাদের গান। এই গানের স্পষ্টই বিরোধিতা করা হচ্ছে হিন্দুত্ববাদের। কাজেই নির্বাচনের পূর্বেই রাজনৈতিক ভাবেই গানটিকে বিশ্লেষণ করা হচ্ছে। এই গানের ভিডিয়োতে রয়েছেন, রুদ্রপ্রসাদ, সব্যসাচী, অনির্বাণ, রূপঙ্কর, অনিন্দ্য, ঋদ্ধি, পরমব্রত, দেবলীনা ছাড়াও অনেকে। গানের ভিডিয়োতে দেখানো হয়েছে গোটা ভারতবর্ষের বর্তমান রাজনৈতিক অরাজকতা। ভিডিয়োতে ছেঁড়া হয়েছে অ্যান্টি নাশানাল, গো টু পাকিস্তান, হোয়াটসঅ্যাপ ইউনিভার্সিটি, টুকরে গ্যাং, আচ্ছে দিনে এবং গোমূত্রে ক্যান্সার সারে এই ধরনের বক্তব্যের পোস্টার। কাজেই একদল রাজনীতিবিদ সহজেই এই গানটিকে তাদের বিরুদ্ধে গাওয়া হয়েছে বলে রাজনীতির রং লাগিয়ে দিয়েছেন। তবে গানটির কথা এবং বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট এবার রাজ্যস্তর পেরিয়ে জাতীয়স্তরের শিল্পীমহলকে ভাবিয়ে তুলেছে, সেটা সঙ্গীতশিল্পী বিশাল দাদলানির পোস্ট দেখলেই বোঝা যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here