ডেস্ক: অভিষেক যতই হুঁশিয়ারি দিন না কেন পিছু হঠবার পাত্র নন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। বরং আদালতে দেখা হবে এমনই হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। বিগত দুই দিন ধরে রাজ্য তথা জাতীয় রাজনীতি তোলপাড় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রীকে নিয়ে। বিমানবন্দরে তিনি নাকি ২ কেজি সোনা সহ ধরা পড়েছেন কোনও কোনও সংবাদ মাধ্যমে আবার বলা হয়েছে সংখ্যাটা ১০ কেজি। একাধিক সংবাদমাধ্যমের দাবি ঘটনার জেরে এফআইআরও দায়ের করা হয়েছে অভিষেকের স্ত্রীর বিরুদ্ধে। যদিও গোটা বিষয়টি মিথ্যা বলে দাবি করে ভুয়ো খবর ছড়ানোর অভিযোগে সংবাদমাধ্যমগুলির বিরুদ্ধে মানহানি মামলার নোটিশ পাঠিয়েছেন অভিষেক। সংবাদমাধ্যম গুলির পাশাপাশি গত ২২ মার্চ একটি টুইট করেছিলেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। ৪৮ ঘন্টার মধ্যে সেই টুইট মুছে ফেলার জন্য নোটিশ পাঠানো হয়েছে সুজন চক্রবর্তীকেও। এদিন তারই পাল্টা দিলেন ওই সিপিএম নেতা।

রবিবার বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যকে পাশে নিয়ে অভিষেকের পাল্টা দিয়ে সাংবাদিক বৈঠকে সুজন চক্রবর্তী জানান, ‘আমি টুইট মুছব না, যা করার করুন। মান থাকলে তবে তো মানহানির মামলা হয়। ওদের তো মানই নেই মানহানি হবে কি করে?’ এদিন বিমানবন্দরে অভিষেকের স্ত্রীর সোনা বিতর্ক ইস্যুতে সুজন আরও জানান, ‘বিমান বন্দরে লেডি অফিসারকে কে পাঠাল? কেন পুলিশ ও কাস্টমসের মধ্যে বৈঠক করতে হচ্ছে? যেই সেটা নিয়ে কথা হচ্ছে ওমনি ফোস্কা পড়ছে? এত গাত্র দাহ কেন? আমাকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে টুইট মুছতে বলে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আমি ৪৮ নয়, ২৪ ঘন্টার মধ্যেই জানিয়ে দিলাম, আমার টুইট আমি মুছব না। আপনার যা করার করতে পারেন। আদালতে যাওয়ার হলে যাব আমার কোনও আপত্তি নেই।’ শুধু তাই নয়, একইসঙ্গে তিনি এটাও জানান, ‘মমতা ও মোদীর যে তলে তলে সুন্দর যোগাযোগ রয়েছে তা এই ঘটনাই প্রমাণ করে। পরিস্থিতি সামাল দিতে কাস্টমসের সঙ্গে বৈঠকে বসতে হচ্ছে পুলিশকে। কাস্টমসের সঙ্গে কথাবার্তা বলেই ছাড়া হয়েছে ওনাকে। প্রশ্ন এটাই, কেন রাজ্য পুলিশ ওখানে গেল?’

উল্লেখ্য, গত ২২ মার্চ অভিষেকের স্ত্রী ২ কেজি সোনা সহ বিমানবন্দরে ধরা পড়েছেন এই খবরের গুঞ্জন ছড়ানোর পরই একটি টুইট করেন সুজন যেখানে তিনি লেখেন, ‘তিনি হাতে নাতে ধরা পড়লেন কলকাতা বিমানবন্দরে। কিন্তু যেটাকে সুন্দরভাবে গোছানো হয়েছে কেন্দ্র ও রাজ্যের তত্ত্বাবধানে। মোদীভাই দিদিভাই? কোনও প্রমাণ কোনও তথ্য রাখা হল না কার অনুপ্রেরণায়? ভাইপো পরিবারকে উপহার মমতা অফিশিয়ালের? আদালতে এর যথাযোগ্য বিচার হোক।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here