ডেস্ক: পাকিস্তানী গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই সুন্দরীর সেক্স চ্যাটের ফাঁদে পড়ে গোপন তথ্য পাচারের অভিযোগে গ্রেফতার হলেন ভারতীয় বায়ুসেনা অফিসার অরুণ মারবাহ। দিল্লিতে বায়ুসেনার হেডকোয়ার্টারে গ্রুপ ক্যাপ্টেন পদে কর্মরত অরুণকে বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সূত্রের খবর, কয়েকমাস আগে এক আইএসআই এজেন্ট মহিলা সেজে জনৈক নৌসেনা কর্মীর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে। সেই ফাঁদে পা দেন ক্যাপ্টেন অরুণও। তারপর থেকেই শুরু হয় নিয়মিত চ্যাট, একই সঙ্গে চলে গোপন তথ্য আদান-প্রদানও।

পুলিশ সূত্রে খবর, গত বছর ডিসেম্বর মাসে এক আইএসআই এজেন্ট নিজের দুটি ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সাহায্যে ক্যাপ্টেন অরুণের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করেন। ক্রমশ চ্যাটের মাধ্যমে দুজনের সম্পর্ক বেড়ে ওঠে এবং আইএসআই এজেন্ট ক্যাপ্টেনের সঙ্গে সেক্স চ্যাট শুরু করে। নিজেকে মডেল পরিচয় দিয়ে ক্যাপ্টেন অরুণকে ষড়যন্ত্রের জালে আষ্টেপৃষ্ঠে ধীরে ধীরে গোপন নথি চাওয়া শুরু করে সে। এরপর সেক্স চ্যাটের লোভ সামলাতে না পেরে দিল্লি বায়ুসেনা দফতরের বিভিন্ন গোপন ছবি তুলে আইএসআই এজেন্টকে হোয়াটসঅ্যাপে পাঠিয়ে দেন অরুণ।

ট্রেনিং, কমব্যাট এক্সারসাইজ সম্পর্ক তথ্য পাচার ছাড়াও যুদ্ধের প্রস্তুতি সংক্রান্ত বহু গোপনীয় তথ্য তিনি পাকিস্তানের হাতে তুলে দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এমনকি তাঁর পাঠানো নথিতে ‘গগন শক্তি’ নামের কমব্যাট এক্সারসাইজের গোপন তথ্যও সামিল রয়েছে। কয়েক সপ্তাহ আগে এই বায়ুসেনার এক বরিষ্ঠ আধিকারিকের বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ হওয়ায় তিনি তদন্ত শুরু করেছিলেন। গোপনভাবে তদন্ত চালিয়ে তাঁর সন্দেহ ক্রমশই সত্যে রূপান্তরিত হতে দেখা যায়। শেষ পর্যন্ত দিল্লি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাঁকে হাতেনাতে ধড়ে ফেলা হয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here