news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনা আতঙ্কের জেরে শেষ পর্যন্ত পিছিয়ে যাচ্ছে টি-২০ বিশ্বকাপ। চলতি বছরের শেষে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সম্ভবত আয়োজিত হচ্ছে না ক্রিকেটের মেগা ইভেন্ট। এমনটাই খবর একাধিক মিডিয়ার। আগামী ২৮ মে আইসিসি’র বৈঠক রয়েছে। সেদিনই এই ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে খবর।

দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রকাশিত খবরে এক সূত্র জানিয়েছে যে, ‘লজিস্টিক’ ও ‘হসপিট্যালিটি’ ইস্যুর জন্যই অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে তাদের দেশে কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপ করা সম্ভব নয়। সেই সূত্র বলছেন, “লজিস্টিক ও হসপিট্যালিটি ছাড়াও আরও একটা বিষয় রয়েছে। যদি টুর্নামেন্ট করতেই হয় তাহলে ফাঁকা মাঠে করতে হবে। যার কোনও মানে হয় না। দর্শক মাঠে না আসলে অস্ট্রেলিয়ার বিরাট আর্থিক ক্ষতি হবে। বিশ্বকাপ আয়োজন করলে এই মুহূর্তে হোস্টিং ফি ও পার্টিসিপেশন ফি পাবে। সেটা যে কোনও সময় পাওয়া যেতে পারে। কিন্তু রেভিনিউয়ের কথাটাও ভাবতে হবে।”

অস্ট্রেলিয়া চলতি বছর বিশ্বকাপ আয়োজন না করতে পারলে, তাদের কাছে বিকল্প হিসেবে তিনটি রাস্তা খোলা থাকছে। এক) আগামী বছর মার্চ-এপ্রিল নাগাদ করা। কিন্তু বিসিসিআই রাজি হবে না। কারণ সেই সময় আইপিএল হবে। এছাড়াও ইংল্যান্ড আসবে ভারত সফরে। এমনকী সম্প্রচার করার জন্য স্টার ইন্ডিয়াকেও পাওয়া যাবে না। কারণ ভারতের যে কোনও দ্বিপাক্ষিক সিরিজ ও আইসিসি’র ইভেন্ট দেখানোর জন্য একমাত্র সত্ত্ব রয়েছে তাদেরই। দুই) ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও বিসিসিআই নিজেদের মধ্যে চুক্তি করে ঠিক করতে পারে যে, ভারত ২০২২-এর বদলে ২০২১-এ টি-২০ বিশ্বকাপ আয়োজন করবে। আর অস্ট্রেলিয়া ২০২১-এর বদলে ২০২২ সালের আয়োজক হবে। তিন ও শেষ) ২০২২ সালটাই অজিরা বেছে নিতে চাইবে কারণ সেবছর কোনও আইসিসি ইভেন্ট নেই। অধিকাংশ অংশিদারই তাতে রাজি হবে।

চলতি বছর টি-২০ বিশ্বকাপ নাহলে ভারতের মাটিতে আইপিএল হওয়ার সম্ভাবনা আরও উজ্জ্বল হবে। একথা হলফ করে বলা যায়। অস্ট্রেলিয়া মাটিতে যে বিশ্বকাপ হচ্ছে না তা একপ্রকার বলেই দিয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট এক দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, “আমিও শুনেছি টি-২০ ওয়ার্ল্ড কাপ হবে না। আইসিসির এগজিকিউটিভ বোর্ড ২৮ মে মিট করছে। তারা ফাইনাল ডিসিশন নেবে।সবই কানাঘুষো। ঠিকঠাক জানি না। তবে অস্ট্রেলিয়া সরকারের হায়েস্ট লেভেল থেকে বোধহয় এতগুলো দেশকে অক্টোবর-নভেম্বরে এসে খেলার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না।” আইপিএল হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক। কিন্তু এত দূর তিনি ভাবছেন না। তাঁর সংযোজন, “(আইপিএল) হতেই পারে। কিন্তু রেস্ট্রিকশন তো এখানেও কত রকম রয়েছে। কী করে আগাম প্ল্যানিং সম্ভব? আর একবার মনে করিয়ে দিচ্ছি, আমরা কিন্তু লকডাউনেই রয়েছি।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here