দেবশ্রী যোগ দিলে আমি থাকব না, বিজেপির সদর দফতরে তুমুল হট্টগোল শোভনের

0
2076

মহানগর ওয়েবডেস্ক: কার মারফৎ তিনি এসেছিলেন জানা নেই, কিন্তু তিনি এসেছিলেন। সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরায় এক ঝলকে দেখা গিয়েছিল রায়দিঘির তৃণমূল বিধায়ক দেবশ্রী রায়ের ছবি। এরপরই জল্পনা ছড়ায় তবে কি শোভনের সঙ্গেই বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন দেবশ্রীও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দেখা যায় দেবশ্রী নন, বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন শুধু শোভন ও বৈশাখী। তবে দেবশ্রী গেলেন কোথায়। সে তথ্য জানা গেল কিছু পরেই। দেবশ্রী বিজেপিতে যোগ দিলে তিনি থাকবেন না বিজেপির সদর দফতরে বসে এমনই গোঁ ধরেছিলেন শোভন। দীর্ঘক্ষণ ধরে বিজেপি অফিসে শোভনকে মানাতে বসেন কেন্দ্রীয় নেতারা। শেষ পর্যন্ত অবশ্য দেবশ্রী ছাড়াই যোগ দেন তিনি।

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার রাতের বিমানে দিল্লি যাওয়ার পর বুধবার ৪ টে নাগাদ বিজেপির অফিসে পৌঁছন শোভন। এরপরই সেখানে উপস্থিত হন দেবশ্রী রায়। এই খবর শোনার পরই রীতিমতো বেঁকে বসেন শোভন স্পষ্ট জানিয়ে দেন দেবশ্রী যদি বিজেপিতে যোগ দেন কোনও মতেই এই দলে থাকবেন না তিনি। যা নিয়ে দীর্ঘক্ষণ ধরে সদর দফতরের মধ্যে চলতে থাকে নাটক। পরিস্থিতি এমন হয় যে ৪টে ৩০ নাগাদ দল বদলের অনুষ্ঠান শুরু করার কথা থাকলেও তা শুরু করতে বেজে যায় ৫ টা। পরে শোভনকে বুঝিয়ে সুঝিয়ে আস্বস্থ করেন বিজেপি নেতারা। বলেন, দেবশ্রী যোগ দেবেন না বিজেপি। এদিকে মুকুল রায়ও সংবাদ মাধ্যমকে জানান, দেবশ্রী কার সঙ্গে কথা বলে বিজেপিতে যোগ দিতে এসেছেন আমি জানি না।

উল্লেখ্য, একটা সময়ে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল দেবশ্রী রায়ের। রায়দিঘির বিধায়ক হওয়া সত্ত্বেও শোভনকে ওই কেন্দ্র দেখভালের দায়িত্ব দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দুরত্ব বাড়ে শোভন ও দেবশ্রীর। রায়দিঘির দায়িত্বও ছেড়ে দেন তিনি। এরপর এদিন বিজেপিতে যোগ দেওয়ার মঞ্চে হঠাৎ আবির্ভাব ঘটে দেবশ্রীর। যদিও তা সামাল দিতে বেশ বেগ পেতে হয় বিজেপি নেতাদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here