news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাস গোটা বিশ্বে ছড়িয়েছে চীন। কিন্তু তাদের পক্ষপাতিত্ব করে বাকিদের সময়মতো সতর্ক করেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এমন অভিযোগ প্রথম থেকেই তুলে এসেছে আমেরিকা। সেই প্রেক্ষিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে মার্কিন সরকার। একই সঙ্গে দুর্নীতির অভিযোগ তোলা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে ‌। এই প্রেক্ষিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে পুরোপুরি সম্পর্ক ছিন্ন করেছে মার্কিন প্রশাসন। তবে পুনরায় তাদের সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক করতে শর্ত রেখেছে ট্রাম্প সরকার।

হোয়াইট হাউজের তরফে জানানো হয়েছে, যদি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দুর্নীতি বন্ধ করে এবং চীনের পক্ষপাতিত্ব করা ছেড়ে দেয় তবেই তাদের সঙ্গে সম্পর্ক পুনরায় স্থাপন করার কথা ভাববে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন। তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে পুনরায় নিজেকে তৈরি করতে হবে যেখানে কোনো দুর্নীতি থাকবেনা। পাশাপাশি চীনের পক্ষপাত নেওয়া বন্ধ করতে হবে। এমনটা হলেই আমেরিকা ফের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক যুক্ত করার কথা ভাববে। এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, গোটা বিশ্বের নিরিখে সবচেয়ে বেশি অর্থনৈতিক সাহায্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে করে আমেরিকা। সেই সাহায্য আর দেওয়া হবে না তাদের।

করোনাভাইরাস গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ার প্রথম পর্যায় থেকেই চীনের বিরুদ্ধে সুর ছড়িয়েছে আমেরিকা। ইচ্ছা করে ভাইরাস ছড়ানো হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছিল তারা। কিন্তু প্রতিবারই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কার্যত আমেরিকার দাবি নাকচ করে চীনের পাশে দাঁড়িয়েছে। বলা হয়েছে ইচ্ছাকৃত ভাইরাস ছড়ানো হয়নি। পরবর্তী ক্ষেত্রে অবশ্য আন্তর্জাতিক মহলের চাপে চীনের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে অনুমতি দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। যদিও তা কতটা নিরপেক্ষ হবে তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে আমেরিকাসহ একাধিক দেশেরই। চীনের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে ইচ্ছুক ভারতও। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here