ছবি: প্রতীকী

ডেস্ক: বেআইনিভাবে নির্মাণ করা মসজিদ সিল করে দিল গুরুগ্রাম পুরনিগম৷ অভিযোগ ছিল, পরিত্যক্ত এক তিনতলা বাড়িকে রাতারাতি মসজিদ বানিয়ে ফেলা হয়েছিল৷ শুধু তাই নয়, বিভিন্ন এলাকার মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ সেখানে এসে নামাজ পড়তেও শুরু করে দেন৷ লাউড স্পিকারে আজানকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সঙ্গে বচসা শুরু হয়েছিল আগেই৷ এরপরেই বেআইনি এই মসজিদকে বন্ধ করার দাবি জানান স্থানীয়রা৷ এই বিবাদের জেরেই মসজিদ সিল করার মত পদক্ষেপ নিল গুরুগ্রাম পুরনিগম৷

জানা যাচ্ছে, গুরুগ্রামের শীতলা কলোনির একটি তিনতলা বাড়িকে হঠাৎই মসজিদ বানিয়ে ফেলায় হতবাক হয়ে যান স্থানীয়রা৷ তারা জানান, ওই এলাকায় সরকারি গুদাম রয়েছে যার ৩০০ মিটারের মধ্যে নির্মাণকাজ করা বেআইনি৷ কিন্তু কোনও নিয়ম না মেনেই সেখানে মসজিদ নির্মাণ করা হয়৷ এক সপ্তাহ আগে থেকে সেখানে লাউড স্পিকারে আজান দেওয়াও শুরু হয়৷ এই আজানের আওয়াজে বিরক্ত হয়েই স্থানীয়রা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন৷ অভিযোগ পেয়ে পুলিশ দ্বারস্থ হয়ে গুরুগ্রাম পুরনিগমের৷ তারাই সিল করে দেয় ওই মসজিদটি৷

মসজিদ সিল করার প্রতিবাদ করে ওই এলাকায় জড়ো হন কিছু আন্দোলনকারীরা৷ তাদের সঙ্গে বচসাও বাঁধে পুরনিগম কর্তৃপক্ষের৷ কিন্তু মসজিদ সিল করার পাশাপাশি ওই বিক্ষোভকারীদেরও সেখান থেকে উৎখাত করে পুলিশ৷ এই ঘটনার পর মুসলমান সম্প্রদায়ের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে৷ মসজিদ সিল করে দেওয়ার ঘটনায় হিংসা ছড়াতে পারে আশঙ্কা করছে পুলিশ৷ এর কারণে মসজিদ এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে সশস্ত্র পুলিশ বাহিনী৷

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here