রাতের শহরে ফের উদ্ধার আগ্নেয়াস্ত্র, তপসিয়া থেকে গ্রেফতার এক

0
236

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা : গত সাত দিনে এই নিয়ে চতুর্থবার। ফের শহরে তল্লাশি চালিয়ে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করল কলকাতা পুলিশ। ঘটনাস্থল এবার তপসিয়া থানা এলাকা। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গতকাল মধ্যরাতে দক্ষিণ তপসিয়া রোডের ওপর একটি দোকানের সামনে থেকে এক দুষ্কৃতীকে আটক করে তপসিয়া থানার পুলিশ। তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার হয় একটি আগ্নেয়াস্ত্র। তাঁর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করে তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতের নাম মহম্মদ টিপু, সে ওই এলাকারই স্থানীয় বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। ধৃতকে আজ শিয়ালদহ আদালতে তোলা হয়।

গোপন এবং বিশ্বস্ত সূত্র মারফত গতকাল মধ্যরাতেই পুলিশের কাছে খবর আসে মহম্মদ টিপু নামে ওই দুষ্কৃতীর সম্পর্কে। বেশ কিছু দিন ধরেই সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ওই দুষ্কৃতী এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছিল বলে জানা যায়। শনিবার মধ্যরাতেই টিপু সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ফের এলাকায় বেরোতে পারে বলে গতকাল রাতেই খবর পায় পুলিশ। এরপরেই সূত্রের খবর অনুযায়ী ওই দুষ্কৃতীকে পাকড়াও করতে এলাকায় অভিযান চালায় তপসিয়া থানার পুলিশ। রাত তিনটে নাগাদ দক্ষিণ তপসিয়া রোডের কাছে ‘এসকে শপ’ নামে একটি দোকানের সামনে দিয়ে স্কুটি নিয়ে যাওয়ার সময় হাতেনাতে আটক করা হয় ওই দুষ্কৃতীকে। এরপর চিরুনি তল্লাশি চালিয়ে তাঁর স্কুটির ভেতরের চেম্বার থেকে উদ্ধার হয় একটি দেশি রিভলবার। বাজেয়াপ্ত করা হয় সেটি। এর পরেই তাঁকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত মহম্মদ টিপুর বাড়ি তপসিয়া থানা এলাকাতেই। ধৃতের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৫ (ওয়ান বি), (এ) এবং ২৯ ধারায় অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করেছে পুলিশ। আজ তাঁকে শিয়ালদহ আদালতে পেশ করা হবে। সূত্রের খবর ধৃতকে চার দিনের জন্য পুলিশি হেফাজত চাওয়া হতে পারে। এই আগ্নেয়াস্ত্র তার কাছে কী করে এল, কি উদ্দেশ্যে সে সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র রেখেছিল, জেরা করে তা জানার চেষ্টা করবেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

প্রসঙ্গত, এই নিয়ে চলতি সপ্তাহে সাত দিনে মোট চারবার আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হল শহর কলকাতার বুকে। গত শনিবার রাতভর শহর জুড়ে তল্লাশি চালায় কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। সেই রাতেই গ্রেপ্তার করা হয় দুই দাগি দুষ্কৃতীকেও, যাঁদের জেরা করে হদিশ মেলে আগ্নেয়াস্ত্র সম্ভারের। এরপর ওই দুষ্কৃতীদের জেরা করে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত সোমবার রাতে তিলজলা এলাকা থেকে উদ্ধার হয় বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র। চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই ফের শহর থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে কলকাতা পুলিশ। পরবর্তী ঘটনাস্থল দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার রেনিয়া এলাকা। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই এলাকা থেকে বেশ কিছু আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলিসহ সহ একটি গ্যাংয়ের চাঁইকে গ্রেফতার করে রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ। সে সম্প্রতি নরেন্দ্রপুর এলাকার ত্রাস হয়ে উঠতে চাইছিল বলে তদন্তে জানা যায়। তার ঠিক পর দিন অর্থাৎ বুধবার বিকেলেই তারাতলা টাঁকশালের সামনে থেকে আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ এক দাগী দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করে কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স। তাকে জেরা করে মেলে এক অস্ত্র তৈরির কারখানার হদিস। সেই তথ্য অনুযায়ী স্থানীয় পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে উত্তর চব্বিশ পরগনার হাবরা থানা এলাকায় অভিযান চালায় কলকাতা পুলিশের এসটিএফ। উদ্ধার হয় দেশি বন্দুক তৈরির প্রচুর সরঞ্জাম ও বেশ কিছু অসম্পূর্ণ আগ্নেয়াস্ত্র। হাতেহাতে গ্রেপ্তার করা হয় ওই কারখানায় কাজ করা তিনজনকে। পুজোর আগে শহর কলকাতা থেকেই বিপুল পরিমাণ আগ্নেয় উদ্ধার হওয়ার ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই চিন্তিত তিলোত্তমার নাগরিক সমাজ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here