news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: গোটা দেশে হুড়মুড়িয়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও কয়দিন আগেও স্বস্তিতে ছিল শহর কলকাতা। তবে রাজ্যসরকারের উচ্চপদস্ত এক আধিকারিকের সন্তানের দায়িত্বজ্ঞানহীনতার জেরে সংখ্যাটা বাড়তে শুরু করেছে ক্রমশ। শুধু তাই নয়, জানা গিয়েছে ওই তরুনের বাবা একজন ডাক্তার। সবটা জেনেও ছেলে কোয়ারেন্টিনে না থেকে বাইরে ঘুরে বেড়ানো, ও এই ঘটনায় ডাক্তার বাবার কোনও পদক্ষেপ না থাকায় ওই চিকিৎসকের সদস্যপদ খারিজ করল ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন।

জানা গিয়েছে, ওই তরুণ বাড়ি ফেরার দু’দিন পর কৃষ্ণনগরে রোগী দেখেন তার ডাক্তার বাবা। তবে ওই চিকিৎসকের করয়ান টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় স্বস্তির শ্বাস ফেলেছে প্রশাসন। তবে একজন চিকিৎসক হয়ে এমন দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজের জন্য তরুণের বাবার সদস্যপদ খারিজ করে দিল ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন। IMA সংগঠনের তরফে এই সিদ্ধান্তের পর জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, চিকিৎসক হয়েও যেভাবে দায়িত্বহীনতার পরিচয় উনি দিয়েছেন তাতে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া ছাড়া আর কিছুই করার ছিল না আমাদের।

তবে ওই তরুণের বাবা শুধু নন, দায়িত্বজ্ঞানহীনতায় কিছু কম যান না তরুণের উচ্চপদস্থ আধিকারিক মা ও। লন্ডন ফেরত ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে নবান্নেও গিয়েছিলেন তিনি। এই ঘটনায় যারপরনাই অসন্তুষ্ট হন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেন কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না বিষয়টিকে। কেউ যদি স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টাইনে না যান সেক্ষেত্রে জোর করে আইসোলেশনে পাঠানো হবে বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here