imran kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: আন্তর্জাতিক মহলে কাশ্মীরকে ইস্যু করতে পারল না পাকিস্তান৷ বুধবার কার্যত এই বিষয়ে নিজের হার মেনে নিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ মোদীর ওপর কোনও চাপ নেই বললেন হতাশ পাক রাষ্ট্রপ্রধান৷ উল্লেখ্য চলতি বছরের ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করেছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক স্তরে কাশ্মীরকে ইস্যু করার আপ্রাণ চেষ্টা করেছে পাকিস্তান৷ এই নিয়ে সোচ্চার হয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ তবে তিনি গলা ফাটালেও পাকিস্তান সেভাবে পাশে পায়নি কাউকে৷ উলটে অনেক দেশই সমর্থন করেছে ভারতকে৷ অবশেষে বাস্তব সত্যিটা উগরেই দিলেন ইমরান খান। কাশ্মীর ইস্যুকে আন্তর্জাতিকীকরণের চেষ্টায় পাকিস্তান ব্যর্থ হয়েছে বলে স্বীকার করে নিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ৷ ইমরান খান বলেন ‘আন্তর্জাতিক স্তরের প্রতি হতাশ তিনি’।

তবে এখনই একেবারে হাল ছাড়েতা রাজি নন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ তাঁর সাফ কথা, ‘আমরা কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের ওপর চাপ অব্যাহত রাখব।’ ইমরান খান যখন সাংবাদিক সম্মেলন করে এ কথা বলেন তখন সেখানে পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি এবং রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত মালেহা লোধিও উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী মোদি এবং ইমরান খান দুজনেই বর্তমানে রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ অধিবেশনে অংশগ্রহণের জন্য নিউইয়র্কে রয়েছেন। ভারতের আন্তর্জাতিক স্তরে সুনাম ও আর্থিক প্রতিপত্তির ফলেই ভারতের পক্ষ নিয়ে কথা বলছেন সবাই। আর এই কারণেই পাকিস্তানের জম্মু ও কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে তোলা দাবি খারিজ করে দিয়েছে আন্তর্জাতিক স্তর৷ এমনটাই মনে করেন ইমরান খান।

ভারতের বিশাল বাজারের জন্য মোদীকে কেউ চটাতে চান না বলে অভিযোগ করলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ তাঁর কথায়, সবাই ভারতের ১.২ বিলিয়ন বাজারকেই লক্ষ্য রাখছে’৷ এমনটাই দাবি করেন তিনি। এমনকি বিশ্ব সম্প্রদায় যে কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়েছে, শুক্রবার রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ পরিষদে ভাষণ দেওয়ার সময় বকলমে সেকথাই স্বীকার করে নেন ইমরান খান ।এই মাসের শুরুতে, পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার ইজাজ আহমেদ শাহ স্বীকার করে নেন যে কাশ্মীর ইস্যুতে ইসলামাবাদ তার অবস্থান নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন পেতে ব্যর্থ হয়েছে। ‘মানুষ আমাদের কথা বিশ্বাস করে না তবে তাঁরা ভারতকেই বিশ্বাস করেন,’ বলেন পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here