kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জম্মু কাশ্মীর বিভাজনকে কেন্দ্র করে আরও ঘোরালো হচ্ছে ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্ক। গতকালই পরমাণু বোমার কথা উল্লেখ করে উদ্বেগ বাড়িয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এবার আরও চরম পদক্ষেপ নেওয়ার হুমকি পাকিস্তানের। জি-৭ সামিটে আমেরিকাও একে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের তকমা দিয়ে ফেলায় আরও বেকায়দায় পড়েছে পাকিস্তান। শেষ পর্যন্ত ভারতের জন্য নিজেদের পুরো আকাশপথটাই বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে ফেলেছেন ইমরান খান। যা কাশ্মীর ফিরে পাওয়ার এক ব্যর্থ অথচ মরিয়া চেষ্টা হিসেবেই কেবল দেখা যেতে পারে।

এদিন ঘুরিয়ে এহেন হুমকি দিয়েছেন পাকিস্তানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী। তিনি জানান, ভারতীয় বাণিজ্য ব্যবস্থাকে বন্ধ করে দিতে পাকিস্তানের আকাশপথ ব্যবহারের ওপর পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞা লাগানোর পরিকল্পনা করছেন ইমরান খান। তিনি বলেন, ‘ভারতের জন্য আকাশপথ পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়ার চিন্তাভাবনা করছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী। মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে পাকিস্তানের সড়কপথে ভারত যেসব বাণিজ্য আফাগানিস্তান বা আমাদের দেশে করে, তাও সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করে দেওয়া হবে। এই পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আইনি প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করা হচ্ছে। শুরুটা মোদী করেছেন, শেষটা আমরা করব।’ একটি টুইট বার্তায় এমনটাই জানান ইমরান খানের মন্ত্রিসভার মন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, গতকাল ফ্রান্সে জি-৭ সামিটে কাশ্মীর ইস্যুতে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকে বসেন নরেন্দ্র মোদী। বৈঠকের পর কার্যত ভারতের দাবিতেই সিলমোহর দেন ট্রাম্প। যা দেখার পরই তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠেন ইমরান খান। তিনি বলেন, কাশ্মীর স্বাধীন না হওয়া পর্যন্ত আমার চেষ্টা চলবে। কাশ্মীরি জনগণের কাছেও আমি ওয়াদা করছি, কাশ্মীর ইস্যুটি নিয়ে আমি বিশ্ব জুড়ে কাজ করব। সোমবার এই ঘোষণার পরই মঙ্গলবার মন্ত্রিসভার বৈঠক ডাকেন ইমরান। সেখানেই ভারতের আকাশপথ পুরোপুরি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পথে হাঁটেন পাক প্রধানমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here