ভারতের পরমাণু বোমার বোতামটা মোদী সরকারের হাতে, সবাই সাবধান হন: ইমরান খান

0
1045
kolkara bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জম্ম কাশ্মীরকে হাতের সামনে থেকে ফসকে যেতে দেখে মাথা ঠিক রাখতে পারছেন না পাক প্রধানমন্ত্রী। প্রতিদিনই কোনও না কোনও টুইটের মাধ্যমে ভারতের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে চলেছেন তিনি। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সব দিক থেকে ধাক্কা খাওয়ার পরও যেন শিক্ষা হয়নি। এবার ভারতের পারমাণবিক শক্তি সম্পর্কে দুনিয়াকে সতর্ক করতে চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নেমেছেন তিনি। এদিন একের এক টুইট করে ‘ভারত অধিকৃত কাশ্মীর’-এর কথা উল্লেখ করেন তিনি। একই সঙ্গে পরমাণুর বোতামটা যে মোদী সরকারের কন্ট্রোলে রয়েছে তাও মনে করিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন ইমরান।

এদিন নরেন্দ্র মোদী সরকারকে নিশানায় নিয়ে ইমরান খান লেখেন, ‘নাৎসিরা যেভাবে জার্মানি দখল করে রেখেছিল। একইভাবে ফ্যাসিস্ট এবং রেসিস্ট হিন্দু মতাদর্শিরা ভারতকে দখল করে রেখেছে। এটা ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে ৯০ লক্ষ কাশ্মীরিদের জন্য বিপজ্জনক। দু’সপ্তাহ ধরে যা ওখানে যা চলছে সেটাতে অনেক আগেই গোটা বিশ্বের সম্বিত ফিরে আসা উচিত ছিল।’ পাশাপাশি ইমরান আরও লেখেন, ভারতে প্রায় ৪০ লক্ষ মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ হয় নাগরিকত্ব হারানোর ভয়ে রয়েছেন, নয় তো শরনার্থী শিবিরই তাঁদের আশ্রয় হয়ে উঠেছে। জম্মু কাশ্মীরে আরএসএস গুন্ডারা গণহত্যা চালাবে বলেও টুইটে লিখেছেন ইমরান। যা কার্যত তাঁর মানসিক পরিস্থিতি সম্পর্কে বেশ ভালভাবেই ওয়াকিবহাল করছে সমগ্র বিশ্বকে। কী ভাবে সব কূল হারিয়ে এখন কেবল টুইটার সর্বস্ব হয়ে বসে রয়েছেন ইমরান খান।

এরপরই ভারতের পারমাণবিক শক্তিভাণ্ডারের দিকে আন্তর্জাতিক মহলের নজর ঘোরানোর চেষ্টা করেন তিনি। পরবর্তী টুইটে তিনি লেখেন, ‘গোটা বিশ্বকে গুরুত্ব সহ বিবেচনা করতে হবে যে ভারতের পারমাণবিক শক্তির নিয়ন্ত্রণ ফ্যাসিবাদী ও বর্ণবাদী হিন্দু সর্বস্ব মোদী সরকারের হাতে রয়েছে। এই বিষয়টি কেবল একটা সম্প্রদায়ের ওপর নয়, গোটা বিশ্বের ওপর প্রভাব ফেলে।’ তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, এদিন পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং একটি বিস্ফোরক মন্তব্য করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এই টুইটগুলি করেন ইমরান। রাজনাথ বলেছিলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে যদি এবার আলোচনা করতেই হয় তবে সেই আলোচনা পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়েই হবে। জম্মু কাশ্মীর নিয়ে নয়। এই মন্তব্যের ঘণ্টাখানেক পরই টুইটগুলি করেন ইমরান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here