ডেস্ক: ফের বিবাহ বিতর্কে প্রাক্তন পাক অধিনায়ক তথা পাকিস্তানের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল তেহরিক ইনসাফ সুপ্রিমো ইমরান খান৷ গত ফেব্রুয়ারিতে তৃতীয়বারের জন্য বুশরা মানেকার সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন ইমরান৷ নতুন সংসার বুঝে ওঠার আগেই অশান্তির কালো মেঘ ইমরান-বুশরার ঘরে৷ পাক সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, বুশরার আগের পক্ষের সন্তান ইমারানের বাড়িতে থাকতে চাওয়াতেই নাকি সংঘাতের সূত্রপাত৷ অন্যদিকে, নিজের সংসারে ইমরানের বোনের নাক গলানো একেবারেই পছন্দ করছেন না বুশরারও। ইমরান-বুশরার দাম্পত্য কলহ এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল৷

উল্লেখ্য, স্বপ্নাদেশ পেয়েই নাকি ৬৫ বছরের ইমরানকে বিয়ে করেছিলেন আধ্যাত্মিক জগতের মহিলা বুশরার! প্রসঙ্গত, বুশরা মানেকা ছিলেন ইমরান খানের ধর্মীয় গুরু মা৷ এই বিয়ে আলোড়ন ফেলে দিয়েছিল গোটা বিশ্বে৷ মাত্র দু’মাসের ভালবাসা শেষ করে বুশরা মানেকা ইমরানের ঘর ছেড়ে বাপের বাড়ি ফিরে গিয়েছেন। সমস্যার সূত্রপাত বুশরার আগের পক্ষের ছেলেকে নিয়ে৷ বিয়ের আগে ইমরান ও বুশরা সহমত ছিলেন, বিয়ের পরে বুশরার পরিবারের কেউ, এমনকী তার ছেলেও পাকাপাকি ভাবে ইমরানের বাড়িতে থাকতে পারবে না। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই বুশরার ছেলে ইমরানের বাড়িতে থাকতে শুরু করে বলে অভিযোগ ইমরানের।

অন্যদিকে, ইমরানের পোষ্য কুকুরের বাড়িতে থাকা নিয়ে প্রবল আপত্তি ছিল বুশরার৷ সারমেয়টি নাকি বুশরার আধ্যাত্মিক চর্চায় বাধা সৃষ্টি করে৷ পাশাপাশি, ইমরানের দুই বোন এসে ঘাঁটি গেড়েছিলেন তাঁদের বাড়িতে। যা নিয়ে বেজায় চটে ছিলেন বুশরা।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের শুরুতে বুশরায় সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় ইমরানের। প্রায় একবছর পর ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে বিয়ে হয় তাঁদের। এটা ইমরানের তৃতীয় বিয়ে৷ এর আগে ব্রিটিশ নাগরিক জেমাইমা গোল্ডস্মিথকে ১৯৯৫ সালে বিয়ে করেন প্রাক্তন পাক তারকা। ৯ বছর সম্পর্ক থাকার পর তাঁদের বিচ্ছেদ হয়৷ এরপর ২০১৫ সালে টেলিভিশন সঞ্চালিকা রেহম খানকে বিয়ে করেন ইমরান। সেই বিয়ের আয়ু ছিল মাত্র দশ মাস৷ আর বুশরার সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ হল মাত্র দু’মাসের মধ্যে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here