mukul

ডেস্ক: দুই জনকে এনেছিল এবার প্রচারে তৃতীয় ব্যক্তি হিসাবে ইমরান খানকে রাজ্যে প্রচারের জন্য আনছে তৃণমূল। বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনের দফতর থেকে ফিরে বিজেপির দলীয় অফিসে বসে এমনই দাবি করলেন মুকুল রায়। পাশাপাশি, মমতার দিকে আঙুল তুলে তাঁর দাবি, মমতা দিদি জানেন ভোট যদি শেষ পর্যন্ত ব্যালট পর্যন্ত যায় তবে উনি রাজ্য ছাড়া হবে। তবে ইমরান ইস্যুতে মুকুলের দাবি, মুনমুনের আসানসোল কেন্দ্রে ইমরানকে প্রচারের জন্য আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তৃণমূল।

পাশাপাশি, এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মুকুল বলেন, এই রাজ্যে মন্ত্রী সেন্ট্রাল ফোর্সকে বলে মারার জন্য। দুজন প্রচার করে গিয়েছেন এবার শুনছি ইমরান খানকে প্রচারে নিয়ে আসছে তৃণমূল(পাশ থেকে ফিসফিসিয়ে বাবুল সুপ্রিয় বলেন, মুনমুনের কেন্দ্রে, আমার ওখানে) আসানসোলে মুনমুনের প্রচারে। ভারতের গণতন্ত্রের মূল কাথামো নষ্ট করে দিচ্ছেন মমতা। দুর্গাপুর আসানসোলের পুলিশ কমিশনার যা করছেন তাতে ওনার উচিৎ তৃণমূলের পতাকা নিয়ে রাস্তায় ঘোরা। এরপরই তাঁর দাবি, আমি নির্বাচন কমিশন নিযুক্ত বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েকের সঙ্গে দেখা করে ওনাকে বলেছি, সমস্ত বুথে যেন আধা সেনা দেওয়া হয়। পাশাপাশি পক্ষপাতদুষ্ট যে সমস্ত সরকারি আধিকারিকরা রয়েছেন তাঁদের যেন অবিলম্বে সরানো হয়।

তবে নির্বাচন কমিশন যে আগের তুলনায় ভালো কাজ করছে তা মেনে নিয়েছেন মুকুল রায়। তাঁর দাবি, ‘আস্তে আস্তে ভালোর দিকে এগোচ্ছে কমিশনের কাজ। এখনও পর্যন্ত যে কয়টি জায়গায় নির্বাচন হয়েছে সেখানে ৫-০ হবে। সব কটাতে জয় পাবে বিজেপি। একইসঙ্গে মুকুলের হাত ধরে এদিন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন তৃণমূলের দুই আদি নেতা স্বপন রায় ও শৈলেন মাহাতো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here