kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মঙ্গলবার রাতে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে গোটা বাংলা। এরই মাঝে দফায় দফায় সভা করছেন মোদী। টাকির পর বুধবার ডায়মণ্ড হারবারে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে একাধিক বিষয় নিয়ে মমতা সরকারকে তোপ দাগলেন মোদী।

তিনি বলেন, ‘বাংলায় পরিবর্তন আসছে। এখানে আর মমতার গুণ্ডাগিরি চলবে না। বাংলার অবস্থা এতটাই খারাপ যে, এখানে জয় মা দুর্গা, জয় মা কালী, জয় শ্রী রাম বলা যায় না।’ মোদী প্রিয়াঙ্কা শর্মা এবং প্রাক্তন আইপিএস কর্তা গৌরব দত্তের প্রসঙ্গও টানেন। তিনি বলেন, মমতার বাংলায় যদি কেউ আওয়াজ তোলে তাহলে তাঁর স্থান একমাত্র জেলে হয়। এমনকি মমতার আমলে খোদ পুলিশ প্রশাসনও ভয়তে রয়েছে বলে দাবি করেন মোদী। গৌরব দত্তের আত্মহত্যা প্রসঙ্গে বলেন, তাঁর ওপর এতটাই চাপ দেওয়া হয়েছে যে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছেন। যেখানে পুলিশ প্রশাসনই ভয় পেয়ে রয়েছে সেখানে সাধারণ মানুষের অবস্থা কেমন তার কল্পনা করাই যাচ্ছে।

অভিষেক বন্দোপাধ্যায় প্রসঙ্গে বলেন, নির্বাচনের পর তাঁর অফিসের সামনে তালা ঝুলবে। মোদী আরও বলেন, ‘দিদি (মমতা বন্দোপাধ্যায়)-র সরকারে মহিলা পাচারকারী, গো-পাচারকারী, তোলাবাজরা বুক ফুলিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অন্যদিকে, এখানে গুণ্ডারাজ চরমে। এখানে চিটফান্ডের নেতারা, কয়লা, বালি মাফিয়ারা বুক ফুলিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এটা এমনই বাংলা যেখানে ভাড়াটে গুণ্ডারা সময় মতো টাকা পেয়ে যায় কিন্তু স্কুল শিক্ষকরা, সরকারি কর্মীরা সঠিক সময়ে টাকা পায় না। গতকাল অমিত শাহের রোড শো চলাকালীন অমিতকে লক্ষ্য করে বোমা ছোড়া হয়, কিন্তু তিনি বেঁচে যান। এ এ কেমন মুখ্যমন্ত্রী যিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে মানতে রাজি কিন্তু দেশের প্রধানমন্ত্রী মানতে রাজি নন, ধিক্কার!’

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here