kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: শীতলকুচির মতো যদি ঘটনা ঘটে, তা হলে সেখানে আত্মরক্ষার্থে গুলি চালাতে পারে বাহিনী। এছাড়া কোনও ভাবে যদি বুথের আশপাশে জমায়েতের চেষ্টা হলে তা হলে সেই জমায়েতকে কঠোর হাতে সরিয়ে দেওয়া-সহ গ্রেফতার করার নির্দেশ দিয়েছে কমিশন। এছাড়া প্রয়োজন হলে লাঠিচার্জও করতে পারে কেন্দ্রীয় বাহিনী। ভিডিয়ো কনফারেন্সিং করে মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুশীল চন্দ্র, উপ নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন, রাজ্য মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক, রাজ্যের অতিরিক্ত মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক এবং পঞ্চম দফার নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত জেলা নির্বাচনী আধিকারিক, এসপি, এডিজি আইন-শৃঙ্খলা বিএসএফ-এর আইজি বৈঠক করেন। সেই বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। অন্যদিকে, ১৪৪ ধারা নিয়ে কোনও ভাবেই গাফিলতি করা চলবে না বলে স্পষ্ট করল নির্বাচন কমিশন।

আগামীকাল রাজ্যে পঞ্চম দফার বিধানসভা নির্বাচনে ৬ জেলার যে ৪৫টি আসনে ভোট নেওয়া হবে। ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া শান্তিপূর্ণ রাখতে মোট পনেরো হাজার ৭৮৩টি বুথের দায়িত্বে ৮৫৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াও পনেরো হাজার ৭৯০ জন রাজ্য পুলিশ মোতায়েন থাকবে। এছাড়াও সেক্টর অফিস,কিউআরটি-র মতো অন্যান্য দায়িত্বে ১১৮ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন রাখা হবে বলে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, ওই বৈঠকে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা প্রয়োগ করা নিয়ে সতর্ক করা হয়। নির্বাচন যেখানে যেখানে হচ্ছে, সেখানে ১৪৪ ধারা ঠিকঠাকভাবে মানা করছে কিনা তা দেখার জন্য নির্দেশ দেন। বৈঠকে এও নির্দেশ দেওয়া হয়, ১৪৪ ধারা যেখানে রয়েছে তার মধ্যে ভোটার এবং কমিশনের লোক ছাড়া অন্য কেউ যাতে প্রবেশ করতে না পারেন তা দেখতে হবে। এর সঙ্গে কিউআরটি টিমকেও সতর্ক করেছে কমিশন। ইতিমধ্যেই কমিশন পঞ্চম দফার উত্তর ২৪ পরগনা এবং নদিয়ার সমস্ত বুথকেই অতি স্পর্শকাতর ঘোষণা করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here