ডেস্ক: বন্দুক ঠেকিয়ে স্বামীর দু’কান কেটে নিল স্ত্রী! মঙ্গলবার এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে নারকেলডাঙা থানা এলাকার ৭৭/১১ নর্থ রোডে। আহত যুবকের নাম মহম্মদ তনবীর(২০)। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নীলরতন সরকার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। এখনও অবশ্য অভিযুক্ত মুমতাজ় বিবি (৪০) পলাতক।

সূত্রের খবর, বছর দুয়েক আগে তনবীর এবং মুমতাজের নিকাহ হয়। নিকাহর পর মুমতাজ়ের বাড়িতেই থাকত তনবীর। কিন্তু কিছুদিন যেতে না যেতেই তাদের সম্পর্কে চিড় ধরে। তনবীর কোথায় যাবে, কী করবে, তা সব কিছুরই কৈফিয়ৎ দিতে হত মুমতাজকে। আর কথার অবাধ্য হলেই কপালে জুটত বেধড়ক মার। এদিকে ছেলের ওপর দিনের পর দিন এরকম চরম অত্যাচার হতে দেখে তনবীরের মা নিজের একটি বাড়ি বিক্রি করে মুমতাজকে টাকা দিয়ে দফারফা করার চেষ্টা করে। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি। তাই গতকাল সকালে বিবির চাপ সহ্য করতে না পেরে মল্লিকপুরে পালিয়ে যায় তনবীর। কিন্তু সেখান থেকেও তাকে আবার জোর করে তুলে আনা হয়। এরপরেই রাতে তাঁর মাথায় আগ্নেওয়াস্ত্র ঠেকিয়ে দু’কান কেটে নেয় মুমতাজ ও তার বোনেরা।

এই ঘটনার পর তাঁরা ভাবে যে তনবীর মারা গেছে। কিন্তু রক্তাক্ত অবস্থায় কোনোভাবে সেখান থেকে পালাতে সক্ষম হয় সে। এরপরেই সে বাড়িতে খবর দেয়। পরিবারের লোকজনই তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। নারকেলডাঙা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক মুমতাজ় ও তাঁর বোনেরা।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here