ডেস্ক: অক্সিজেনের অভাবে অ্যাম্বুলেন্সের মধ্যে আটকে পড়ে মৃত্যু হল এক ২ মাসের শিশুর। মঙ্গলবার মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিসগড়ের রায়পুরে।দহরেরের বাসিন্দা অম্বিকা কুমার হৃদ‌যন্ত্রে সমস্যার কারণে ওই শিশুটিকে দিল্লির এইমসে নিয়ে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে শিশুটিকে রায়পুরের ডা.ভীমরাও আম্বেদকর হাসপাতালে নিয়ে ‌যাওয়ার নিরদেশ দেয় চিকিৎসকরা। এখানেই শিশুটির হৃদ‌যন্ত্রের অস্ত্রোপচারের হওয়ার কথা ছিল। সেইমতন অম্বিকা ও তাঁর স্ত্রী ট্রেনে রায়পুরে চলে আসেন। স্টেশনে নেমে অম্বিকা একটি অ্যাম্বুলেন্স সেন্টারে ফোন করে একটি গাড়ি ডেকে পাঠান। এরপর যখন তাঁরা হাসপাতালে পৌছায় তখন অ্যাম্বুলেন্সের গেত খুলতে গিয়েই বিপত্তি ঘটে। দরজা কোনোভাবেই খোলা সম্ভব হচ্ছিল না। অম্বিকার অভিযোগ করেছেন যে, অ্যাম্বুলেন্সের দরজা না খোলায় জানলা ভাঙতে গেলে চালক বাধা দেয়। সে বলে যে এটি একটি সরকারী সম্পত্তি, এতা কোনোভাবেই নষ্ট করা যাবে না।

জানা গিয়েছে যে, প্রায় দু’ঘণ্টা ধরে আটকে থাকার পর মিস্ত্রি এসে দরজা ভাঙার চেষ্টা করে। শেষপ‌র্যন্ত গাড়ির পেছনের একটি জানলা ভেঙে শিশুটিকে বের করা হয়। কিন্তু ততক্ষণে সব শেষ হয়ে গিয়েছে। দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here