bengali cricket news

নিজস্ব প্রতিবেদন: শেষ কয়েকদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় লোকেশ রাহুলকে নিয়ে মিমের ছড়াছড়ি। যেকোনও পজিশনে ব্যাটিং, উইকেট কিপিং বা অনুশীলনে বোলিং- সবেতেই দুরন্ত খেলে সকলকে চমকে দিচ্ছেন রাহুল। আর এই বহুমুখী প্রতিভার কারণেই নেটিজেনদের কাছে তিনি ‘লর্ড রাহুল’। রবিবার মিমারদের ‘হট টপিক’ ‘লর্ড রাহুলের’ চওড়া ব্যাটেই দ্বিতীয় টি২০ ম্যাচে কিউয়িদের উড়িয়ে দিল ভারত। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দিলেন শ্রেয়স আইয়ার। তাদের দুজনের জন্যই বিরাট বাহিনী ম্যাচ জিতে নিল ৭ উইকেটে। সেই সঙ্গে সিরিজে ২-০ ব্যবধানে লিড নিয়ে নিল মেন ইন ব্লু।

এদিন টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। একই মাঠে খেলা হলেও প্রথম ম্যাচের মতো দাপট দেখাতে পারেননি কিউয়ি ব্যাটসম্যানরা। যদিও শুরুটা খুনে মেজাজেই করেছিলেন গাপ্টিল ও মুনরো। পাওয়ার প্লেতে ওভার প্রতি প্রায় ৯ রান করে রান তুলছিলেন তারা। কিন্তু ষষ্ঠ ওভারে গিয়ে তাদের পার্টনারশিপ ভেঙে দেয় ভারত। শার্দূল ঠাকুরের বলে কোহলির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান গাপ্টিল (৩৩)।

কিছুক্ষণের মধ্যেই মুনরোকে ফেরান শিবম (২৬)। পরপর দুই উইকেট হারিয়ে চাপা থাকা নিউজিল্যান্ডকে চাপে ফেলতে দুই দিক দিয়েই স্পিনার নিয়ে আসেন কোহলি। ফলও মেলে হাতে নাতেই। জাড্ডুর ঘূর্ণিতে ফিরে যান কেন উইলিয়ামসন (১৪) ও কলিন ডে গ্র্যান্ডহোম (৩)। মাত্র ৮১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে একেবারে ডিফেন্সিভ মুডে চলে যায় ব্ল্যাক ক্যাপসরা। ফলে ইডেন পার্কের ছোট মাঠেও চার ছয়ের হৈহৈয়ের বদলে টেস্টে স্তব্ধতা। ডেথ ওভারে আবার শামি-বুমরাহের নিখুঁত ইয়র্কারে নিউজিল্যান্ডের রানের গতি বাড়ানোর শেষ চেষ্টাও ব্যর্থ হয়। শেষমেশ ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১৩২ রান করে নিউজিল্যান্ড।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভাল হয়নি ভারতেরও। গত ম্যাচের মতোই রোহিত এদিনও ব্যর্থ হন (৮)। তিন নম্বরে নেমে প্রথম টি২০ ম্যাচে ভাল খেলেছিলেন বিরাট। কিন্তু রোহিতের মতোই এদিন সাউদির বলে আউট হয়ে যান ভিকেও (১১)।

পরপর দুই মহাতারকার পতনের পর কিছুটা চাপে পরে যায় ভারতও। তবে সেই চাপ দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। তৃতীয় উইকেটে ভারতের হাল ধরেন লোকেশ রাহুল ও শ্রেয়স আইয়ার। বিগত কয়েক ম্যাচের মতোই রাহুল এই ম্যাচেও ‘মিঃ ডিপন্ডেবল’। কিউয়ি বোলারদের ঠেঙিয়ে নিজের ১১তম টি২০ হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তিনি।

তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দেন শ্রেয়স আইয়ার। দীর্ঘদিন নির্বাচকদের উপেক্ষার জবাব যেন দিয়েই চলেছেন তিনি। সত্যিই শ্রেয়স ভারতীয় ক্রিকেটের ‘নেক্সট বিগ থিং’। যদিও ৩৩ বলে ৪৪ রান করে ঈশ সোধির বলে ক্যাচ আউট হয়ে যান তিনি। তবে ততক্ষণে ম্যাচ ভারতের মুঠোয়। পাঁচে নেমে বিশাল ছক্কা হাঁকিয়ে ষোলকলা পূর্ণ করেন শিবম দুবে (৮*)। ৫০ বলে ৫৭ রান করে অপরাজিত থাকেন লোকেশ রাহুল।

শেষমেশ ভারত ১৭.৩ ওভারেই প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয়। নিউজিল্যান্ডের হয়ে টিম সাউদি দুই উইকেট নেন। একটি উইকেট নেন ঈশ সোধি। এই জয়ের ফলে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে লিড নিয়ে নিল ভারত।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here