এসব হুমকিকে আমরা ভয় পাইনা! দিল্লির কড়া জবাব আলকায়দা প্রধানকে

0
4
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: উপত্যকায় ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে সরাসরি যুদ্ধের ডাক দিয়েছে আল কায়দা। গতকাল আলকায়দা প্রধান আল-জাওয়াহিরির তরফ থেকে একটি ভিড়িয়ো প্রকাশ করে জানানো হয় ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে তাঁর জেহাদ ঘোষণা করছে। প্রকাশিত হওয়া ১৪ মিনিটে ওই ভিডিওতে আল-জাওয়াহিরিকে দেখা গিয়েছে সাদা পোষাকে একহাতে কোরান ও অন্যহাতে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে উপত্যকার সরকারের বিরুদ্ধে নির্বিবাধে আঘাত হানার নির্দেশ দিতে। বলতে শোনা গিয়েছে, ‘আমার মতে ভারতীয় সেনাবাহিনী ও রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আপসহীন আঘাত হানাই উদ্দেশ্য হওয়া উচিত কাশ্মীরের মুজাহিদদের। সমস্ত অর্থব্যবস্থা, লোকবল সমস্ত কিছুকে গুড়িয়ে ফেলতে হবে যাতে মুখ থুবড়ে পড়ে ভারত। এই লড়াই কোনও আলাদা লড়াই নয়, এটা ভারতের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে গোটা বিশ্বের মুসলিম সম্প্রদায়ের জেহাদ। শুধু কাশ্মীর নয়, তাঁর দাবি যে সমস্ত কাফেররা মুসলিম দেশগুলির দখল নিতে চাইছে তাদের গুড়িয়ে দেওয়া উচিত। এই তালিকায় ফিলিপিন্স, চেচনিয়া, মধ্য এশিয়া, সিরিয়া, আরব উপমহাদেশ, সোমালিয়া, তুর্কিস্তানের মতো দেশগুলির নাম তুলে আনে ওই জঙ্গি। একইসঙ্গে, পাকিস্তানেরও কড়া নিন্দা করে বলেছিলেন পাক সরকার আমেরিকার পা চাটা।

এবার তারই পাল্টা জবাব দিল দিল্লি। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের বিদেশ মুখপাত্র রবিশ কুমার বলেন, ‘এমন হুমকি আমরা প্রায়ই শুনে থাকি।’আমার মনে হয় না, এমন হুমকিকে গুরুত্ব দেওয়া উচিত। রাষ্ট্রপুঞ্জের দ্বারা আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষিত আল কায়দার নেতার জানা উচিত যে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সব ধরনের হুমকির জবাবের ক্ষমতা রয়েছে।’

প্রসঙ্গত, এর আগেও উপতক্যায় এধরণের প্ররোচনা মূলক কাজের সঙ্গে লিপ্ত থেকেছে আল-কায়েদা। প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় দফায় ক্ষমতায় আসার পর থেকেই কাশ্মীর নিয়ে কড়া অবস্থান নিয়েছে মোদী সরকার। সন্ত্রাস ইস্যুতে কড়া হাতে মোকাবিলার বার্তা দিয়েছেন নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন কোনও রকম আপস করা হবে না সন্ত্রাসের সঙ্গে। উপত্যকার বেড়েছে ধরপাকড় ও এনকাউন্টার । বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের বাড়িতে হানায় সেনার পাশাপাশি দেখা যাচ্ছে ইডি-র মতো আর্থিক দুর্নীতির তদন্তের সঙ্গে যুক্ত সংস্থাকেও। আর আলকায়দা প্রধান আল-জাওয়াহিরির এই ভিডিওটি যে ভুয়ো নয় তা ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে আমেরিকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here