মহানগর ওয়েবডেস্ক: সীমান্তে চিন বিগত কয়েক মাসে যা করেছে, তার একাধিকভাবে করেছে নয়াদিল্লি। এই প্রথমবার চিনের মাটিতে দাঁড়িয়েই বেজিংয়ে চোখ দেখাল ভারত। ৭৪তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বেজিংয়ে প্রবাসী ভারতীয়দের নিয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সাম্প্রতিক সময়ে চিনের ভূমিকা নিয়ে সমালোচনা করেন ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিক্রম মিশ্রি। তিনি এদিন বলেন, ২০২০ বছরটা ভারতের জন্য একেবারেই অন্যরকম কেননা এই বছর ভারতকে ‘দ্বৈত চ্যালেঞ্জে’র সম্মুখীন হতে হয়েছে। একদিকে কোভিড-১৯, অন্যদিকে সীমান্তে চিনা আগ্রাসন।

চিনে বসবাসকারী প্রবাসী ভারতীয়রাও যে একাধিক সমস্যার মুখোমুখি সেখানে হচ্ছেন সেই বিষয়টির উপরও আলোকপাত করেন তিনি। মিশ্রি বলেন, কোভিডের কারণে সৃষ্টি হওয়া বিমান পরিবহণের অনিয়মিত যাতায়াতের কারণে প্রবাসী ভারতীয়দের একটা বড় অংশ ভারতেই অসহায়ভাবে আটকে রয়েছেন। এদিনের অনুষ্ঠানে পতাকা উত্তোলনের পর রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দের ভাষণের অংশবিশেষ পাঠ করেন তিনি। এরপরই ‘সীমান্তে আগ্রাসনের’ কথা বলতে শোনা যায় তাঁকে। স্বাভাবিকভাবেই যা লাদাখ সংঘর্ষ নিয়ে বলা হয়েছে।

মিশ্রি বলেন, ‘আপনারা যেমনটা রাষ্ট্রপতির বক্তব্যে শুনলেন। ২০২০ একটা অন্যরকম বছর হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে, আমরা যারা এখানে চিনে থাকি তাদের জন্যও। আমাদের কোভিড-১৯ এবং সীমান্তে আগ্রাসনের দ্বৈত চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছে। আমরা ভারতীয়রা যে পরিস্থিতির সম্মুখীন এখন হয়েছি, তা স্বাধীনতার যুদ্ধের থেকে কিছুই আলাদা নয়। ফলে এই চ্যালেঞ্জ টপকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য আমাদেরই এগিয়ে আসতে হবে। এখানেই আত্মত্যাগ করতে হবে। একমাত্র সকলে মিলেই এই চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি আমরা হতে পারি। সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here