ডেস্ক: নির্বাচনে জয়লাভ করার পরেই প্রতিটি রাজনৈতিক দলই দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করে তোলার আশ্বাসবানী শোনায়। শিরোনামে আসার জন্য হাজারও পন্থার প্রয়োগ করে থাকে। কিন্তু শেষ অবধি গিয়ে কিছুই করে উঠতে পারে না। এরপরেই শুরু হয়ে যায় একে ওপরের প্রতি কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি। এদিকে দিনের পর দিন দেশে যেন দুর্নীতির সংখ্যা বেড়েই চলেছে। দুর্নীতির নিরিখে গোটা বিশ্বের কাছে ভারতবর্ষই সবথেকে বেশি দুর্নীতিপূর্ণ দেশ হয়ে গিয়েছে। সকলেই এখন মনে করে, এখানে সোজা উপায়ে কোনও কাজ হয় না, যে কাজ হয় তা সবই টেবিলের তলা দিয়ে। অর্থাৎ ঘুষ।

এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, গত এক বছরে দেশের প্রায় ৫৬ শতাংশ মানুষ এই ঘুষের মাধ্যমে সরকারি কর্মীদের খুশ করে নিজেদের কাজ হাসিল করেছে। ২০১৭ সালের দেশের প্রায় ৪৫ শতাংশ মানুষ নিজের মুখে স্বীকার করে নিয়েছে যে, তাঁরা সরকারি দফতরগুলিকে ঘুষ দিয়ে নিজেদের কাজ হাসিল করেছেন। কেন্দ্রীয় বা রাজ্য সরকারের তরফ থেকে দুর্নীতি বন্ধ করার ব্যপারে প্রচারকার্য চালিয়েও কোনও লাভ হয়নি। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে, কেন্দ্র সরকার এ বিষয়কে হয়ত অতটা গুরুত্ব দিতে চাইছে না বা ঠিকঠাক সচেতনতামূলক প্রচার করতে ব্যর্থ হচ্ছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here