মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশের অর্থনীতির হাল খুব একটা ভাল নয়। ইতিমধ্যেই সে কথা জানিয়ে দিয়েছে বিশেষজ্ঞরা। অর্থনীতির এই করুণ পরিস্থিতির প্রভাব বেশ ভালভাবেই পড়েছে সাধারণ মানুষের উপর। চাকুরিজীবীদের উপরও যে এর প্রভাব ভালরকম পড়বে এবার, সেটাই জানিয়ে দিল এওএন(অ্যানুয়াল স্যালারি ইনক্রিজ সার্ভে)। তাদের দাবি, বিগত ১০ বছরের মধ্যে এই বছর সবচেয়ে কম বেতন বৃদ্ধি হতে চলেছে চাকুরিকীবীদের। সমীক্ষার দাবি অনুযায়ী, ২০১৯-২০ এই অর্থবর্ষে বড়জোর ৯.১ শতাংশ বেতন বৃদ্ধি হতে পারে কর্মচারীদের।

জানা গিয়েছে দেশের ২০ টি আলাদা মাধ্যমের ১ হাজার সংস্থার উপর এই সমীক্ষা চালায় এওএন। যার মধ্যে ছিল ৫০০ টি ম্যানুফেকচারিং ও ৫০০ টি সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রিস পার্টিসিপেশন। এখানে ম্যানুফেকচারিং বিভাগে একধাক্কায় বেতন বৃদ্ধি কমে গিয়েছে অনেকখানি। ২০১৮ সালে যেটা ছিল ১০.১ শতাংশ, সেটাই ২০২০ সালে কমে হয়েছে ৮.৩ শতাংশ। যদিও ই-কমার্স, প্রফেশনাল সার্ভিস এই ধরনের সংস্থাগুলিতে এবার বেতন বৃদ্ধি হবে ১০ শতাংশই। লজিস্টিক সেক্টরে বেতন বৃদ্ধির হার কমে গিয়ে দাঁড়াবে ৭.৬ শতাংশ। এছাড়াও একাধিক ক্ষেত্রে বেতন বৃদ্ধির হার তুলনামূলক ভাবে কমই থাকছে। তথ্য অনুযায়ী ২০১৮ সালে বেতন বৃদ্ধির হার যেখানে ছিল ১৫.৮ শতাংশ, ২০১৯ সালে সেটা গিয়ে দাঁড়ায় ১৬.১ শতাংশ। অথচ অর্থনীতির জেরে ২০২০ সালে সেটাই একধাক্কায় পড়ে গিয়ে হতে চলেছে ৯.৩ শতাংশ।

তথ্য অনুযায়ী, সংস্থাগুলির দাবি বেতনের এমন করুণ হালের পিছনে মূলত কারণ আর্থিক বৃদ্ধির অভাব। ধাপে ধাপে জিডিপির পতনের জের ভালভাবে পড়েছে সংস্থাগুলির উপর। তারই ফলস্বরূপ অস্বাভাবিকভাবে কমে যাচ্ছে বেতন বৃদ্ধির হার। যেটা বিগত ১০ বছরে সবচেয়ে কম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here