kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এখনও সরকারিভাবে বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট হননি সৌরভ গাঙ্গুলি। ২৩ অক্টোবর বোর্ডের নির্বাচনের পর প্রেসিডেন্ট হবেন মহারাজ। যদিও দায়িত্ব নেওয়ার আগে থেকে নিজের বিভিন্ন লক্ষ্যের কথা জানিয়ে এসেছেন দাদা। সে ধোনি ইস্যুতে কোহলি-নির্বাচকদের সঙ্গে কথা হোক বা প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের উন্নতি সাধন। তবে তিনি প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর ভারত-পাক সিরিজ কী হবে, এইটাই ক্রিকেটে মহলে এখন সবচেয়ে চর্চিত বিষয়।

১৯৮৯ সালের পর ২০০৪ সালে পাকিস্তান সফর করেছিল ভারত। মাঝে ১৯৯৯ সালে হয়ে গিয়েছিল কার্গিল যুদ্ধ। ফলে ২০০৪ সালে ভারতের পাকিস্তান সফর কূটনৈতিকভাবে প্রভূত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আর সেই সফরে অধিনায়ক ছিলেন মহারাজ। পুলওয়ামা ও পরবর্তী সময়ে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপের পর ভারত-পাক সম্পর্ক একেবারেই তলানিতে। এক্ষেত্রে ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক সফর আর পূর্ণিমায় চাঁদ দেখা যেন একই ব্যাপার। ২০১২ সালে শেষবার দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হয়েছিল।

অথচ বিশ্বক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচই ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর। স্বাভাবিক ভাবেই সৌরভ এবার বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হতেই আলোচনা, তাহলে কী ফের একবার হবে ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক সিরিজ? যদিও এই প্রশ্নের উত্তর সুকৌশলেই এড়িয়ে যান প্রিন্স অফ ক্যালকাটা। দাদার স্পষ্ট জবাব,

‘এই কথার উত্তর মোদীজি ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীই দিতে পারবেন। যেকোনো বিদেশ সফরই দেশের সরকারের অনুমতি ছাড়া হয় না। এক্ষেত্রেও সেটাই প্রযোজ্য। ফলে এই প্রশ্নের উত্তর তাঁরাই দিতে পারবেন।’

প্রসঙ্গত, আগামী ২৩ তারিখ দায়িত্ব নেওয়ার পর ২৪ অক্টোবর প্রথম নির্বাচক কমিটির বৈঠকে বসবেন সৌরভ গাঙ্গুলি। সেখানে ধোনির ভবিষ্যৎ নিয়ে বিরাট কোহলি ও নির্বাচক কমিটির সঙ্গে আলোচনা করবেন মহারাজ।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here