ডেস্ক: ওড়িশার চাঁদিপুরে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি পরমাণু বিস্ফোরক বহনে সক্ষম মিসাইল পৃথ্বী-২ এর সফল উৎক্ষেপণ করল ভারত। ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে সংবাদমাধ্যমকে জানানো হয়েছে, চরম সফল হয়েছে এই উৎক্ষেপণ। মাটি থেকে উৎক্ষেপণ করে শত্রুপক্ষের মাটি ধসিয়ে দেওয়ার ক্ষমতাসম্পন্ন এই মিসাইলের হামলার পরিসীমা ৩৫০ কিলোমিটার। বুধবার সকাল ১১:৩৫ মিনিটে চাঁদিপুরের একটি মোবাইল লঞ্চার থেকে উৎক্ষেপণ করা হয় এই মিসাইল।

১৮ জানুয়ারি অগ্নি-৫ এবং গতকালই অগ্নি-১ মিসাইলের সফল পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের পর আজকের এই উৎক্ষেপণ ভারতীয় প্রতিরক্ষার মুকুটে আরও একটি পালক জুড়ে দিল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, ৫০০-১০০০ কিলোমিটার বিস্ফোরক বহনে সক্ষম এই মিসাইলটি। দুই ইঞ্জিন বিশিষ্ট মিসাইলটিতে তরল জ্বালানী ব্যবহার করা হয়। শত্রুপক্ষের টার্গেটে অব্যর্থ নিশানা লাগাতে এতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানান প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের শীর্ষ স্থানীয় কর্তরা।

জানা গিয়েছে, বঙ্গোপসাগরে শত্রুদেশের সক্রিয়তা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে অতিরিক্ত সতর্কতা বজায় রাখতেই অগ্নি-২ মিসাইলের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ সেরে নেওয়া হল। প্রসঙ্গত, ২০০৩ সাল থেকেই ভারতীয় সেনার অবিছেদ্দ্য অংশ হিসাবে পরিচিত অগ্নি-২। ভারতীয় প্রতিরক্ষার গর্ব অগ্নি সিরিজের দ্বিতীয় মিসাইল এটি। ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (ডিআরডিও) তত্ত্বাবধানে তৈরি প্রথম মিসাইল এটি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here