kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : পড়শিদের সঙ্গে সুসম্পর্ক চায় ভারত। বৃহস্পতিবার ফের এই বার্তা দিল ভারত। এদিন করোনায় জেরবার বাংলাদেশকে এক লক্ষ টিকার ডোজ দিল নরেন্দ্র মোদির ভারত। বিপদের সময়ে বন্ধুদেশকে পাশে পেয়ে যারপরনাই খুশি হাসিনার সোনার বাংলা।

গোটা বিশ্বেই আছড়ে পড়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। ফের শুরু হয়েছে লকডাউন। মারণ ভাইরাসের মোকাবিলায় কোথাও হচ্ছে পূর্ণ লকডাউন, কোথাও বা আংশিক। এমতাবস্থায় দ্রুত টিকাকরণের ওপর জোর দিচ্ছে সব দেশই। তবে ভারতের প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশে প্রয়োজনের তুলনায় টিকার জোগান কম। সে দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা। বাধ্য হয়ে দেশটিতে এক সপ্তাহের জন্য পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করতে হয়েছে সে দেশের সরকারকে।

বিপদে পড়া বন্ধু বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াল ভারত। এদিন ঢাকায় বাংলাদেশের সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের সঙ্গে সাক্ষাত করেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। আজিজের হাতে তুলে দেন ভারতে উতপাদিত এক লক্ষ টিকার ডোজ।

ভারতীয় সেনার তরফে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার ঢাকার সেনানিবাসে অবস্থিত সেনার সদর দফতরে দুই সেনা প্রধানের মধ্যে সৌজন্য সাক্ষাত হয়। সেখানে দু দেশের সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে থাকা সুসম্পর্ক ও ভবিষ্যত অগ্রযাত্রায় পারস্পরিক সহযোগিতার বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। আলোচনায় বর্ডার রোড অর্গানাইজেশন বাস্তবায়ন, সেনার পাইলটদের প্রশিক্ষণ, প্রতিরক্ষা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ এবং প্রশিক্ষক বিনিময়, পারস্পরিক প্রতিরক্ষা সহযোগিতা ইত্যাদি বিষয় সমূহের ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়। বৈঠকে করোনা মহামারীর মোকাবিলায় ভারতের প্রশংসনীয় সহযোগিতার প্রতি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন সে দেশের সেনা প্রধান।

প্রসঙ্গত, মুজিববর্ষ ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দু দিনের বাংলাদেশ সফরে গিয়েছিলেন মোদি। বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি  দেখে ১০ লক্ষ টিকা দেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি। তার মধ্যে এদিন দেওয়া হল এক লক্ষ ডোজ।      

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here