s400 missile defense news

Highlights

  • রাশিয়ার মিশন রোমান বাবুশ্নিকের উপপ্রধান শুক্রবারই সে দেশের সংবাদ মাধ্যমের কাছে এই বিষয়টি জানিয়েছেন
  • এয়ার টু ডিফেন্স মিসাইল হিসেবে বিশ্বজোড়া খ্যাতি রয়েছে রাশিয়ার এই এস-৪০০ মিসাইলের
  • ৪০০ কিলোমিটারের মধ্যে থাকা যে আকাশে ভাসমান কোনও বস্তুতে অব্যর্থ নিশানা হানতে সক্ষম এস-৪০০

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ২০২৫ সালের মধ্যে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে আদালা উচ্চতা প্রাপ্ত করতে চলেছে ভারত। বহু বিতর্ক সত্ত্বেও আগামী পাঁচ বছরের মধ্যেই চলতি দশকের অন্যতম গুরুত্ব অস্ত্র রাশিয়ার এস-৪০০ মিসাইল চলে আসবে ভারতের দখলে। এমনটাই জানানো হয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা সূত্রে। রাশিয়ার মিশন রোমান বাবুশ্নিকের উপপ্রধান শুক্রবারই সে দেশের সংবাদ মাধ্যমের কাছে এই বিষয়টি জানিয়েছেন।

এয়ার টু ডিফেন্স মিসাইল হিসেবে বিশ্বজোড়া খ্যাতি রয়েছে রাশিয়ার এই এস-৪০০ মিসাইলের। একে এই মিসাইল এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া সহজ, একই সঙ্গে অব্যর্থ নিশানা লাগাতেও এর জবাব নেই। ট্রাকের আকারে তৈরি লঞ্চপ্যাড থেকেই সহজে ছোড়া যায় এই মিসাইল। আকাশে ভাসমান শত্রুপক্ষের যে কোনও যুদ্ধবিমান, বা আগত কোনও মিসাইলকে মুহূর্তের মধ্যে ধ্বংস করে দিতে সক্ষম এই মিসাইল। ৪০০ কিলোমিটারের মধ্যে থাকা যে আকাশে ভাসমান কোনও বস্তুতে অব্যর্থ নিশানা হানতে সক্ষম এস-৪০০। এই বিশেষত্বের সঙ্গে মিলিয়েই এর নামকরণ করেছে রাশিয়া। রাশিয়া বাদে গোটা বিশ্বে একমাত্র ভারতের হাতে এই অত্যাধুনিক মিসাইল থাকবে বলে জানা যাচ্ছে।

সূত্রের খবর, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর আগামী ২২ মার্চ রাশিয়া সফরে উড়ে যাচ্ছেন। রাশিয়া, ভারত এবং চিনের ত্রিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে সেখানে। ওই সফরের মাধ্যমেই এস-৪০০ দেশে আসার রাস্তা আরও চওড়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও রাশিয়ার এই অত্যাধুনিক মিসাইল কিনতে গিয়ে কম ঝক্কি পোহাতে হয়নি ভারতকে। আমেরিকার তরফে নানাভাবে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছিল, এমনকী আর্থিক নিষেধাজ্ঞা জারির হুমকি দিতেও পিছুপা হননি মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। সে সবকে অগ্রাহ্য করেই এই চুক্তি করেছিল ভারত।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here