national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশে যাতে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে কোনও সমস্যা না হয়, তাই গত মাসে বিদেশে সবরকম ওষুধ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারত সরকার। কিন্তু মঙ্গলবার ২৪টি ওষুধের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হল। এই ওষুধের মধ্যে করোনা মোকাবিলায় ব্যবহৃত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনও রয়েছে। আর ভারত এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের হুমকির পরেই।

ভারতের তরফ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বেশ কিছু প্রতিবেশী দেশ ভারতের তৈরি ওষুধের ওপর নির্ভর করে। সেই জন্য মানবতার খাতিরেই আংশিকভাবে এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হল। সেই সঙ্গে যে সব দেশে করোনার প্রকোপ বেশি সেইসব দেশে প্রয়োজনীয় ওষুধ রপ্তানি করা হবে।’


উল্লেখ্য,করোনা বিরোধী লড়াইয়ে বেশ কাজে দিচ্ছে ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন। ভারত গত মাসে বিদেশে এই ওষুধ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। আর এরপরেই ভারতের উদ্দেশ্যে কার্যত প্রচ্ছন্ন হুঁশিয়ারি দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভারত এই ওষুধ আমেরিকায় না পাঠালে ফল যে খুব একটা ভালো হবে না, সেই কথাই শুনিয়ে রাখলেন ডন।

সোমবার হোয়াইট হাউজ থেকে এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি জানি না মোদী নিজে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কিনা। আমি রবিবারই তাঁর সঙ্গে কথা বলেছি। আমি জানি অন্য দেশে ভারত এই ওষুধ পাঠাচ্ছে না। তবে ভারতের সঙ্গে আমাদের ভালো সম্পর্ক। আমাদের ক্ষেত্রে আটকাবে বলে মনে হয় না।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি নিজে ওর সঙ্গে কথা বলেছি। আমি বলেছি আমাদের এই ওষুধ লাগবে। উনি বলেছেন খুব শীঘ্রই এই নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। আমার মনে হয় আমেরিকায় ভারত এই ওষুধ পাঠাবে। ভারতের সঙ্গে আমাদের বাণিজ্যিক চুক্তি খুব ভালো। এখন ভারত যদি এই ওষুধ না পাঠায়, তাহলে হয়তো এর প্রভাব অন্য ক্ষেত্রেও পড়তে পারে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here