মহানগর ডেস্ক: শ্রীলঙ্কার মাটিতে শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করার পর স্বভাবতই মনোবল তুঙ্গে জো রুটদের। ভারতের মাটিতেও সেই সাফল্য ধরে রেখেছেন ইংরেজরা। ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৫৭৮ রানের পাহাড় খাড়া করার পর, বল হাতেও সমান দক্ষতা দেখিয়েছেন জোফ্রা আর্চার, ডম বেশ, জিমি অ্যান্ডারসন, জ্যাক লিচরা। চতুর্থ দিনে মধ্যাহ্নভোজের আগেই বিরাট বাহিনীকে মাত্র ৩৩৭ রানেই গুটিয়ে দেয় ইংল্যান্ড। ২৪১ রানের লিড নিয়েও ভারতকে ফলো-অনের লজ্জা থেকে মুক্তি দিল ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবরের ভিত্তিতে, ছয় উইকেট হারিয়ে ১৪৬ রান সংগ্রহ করেছে ইংল্যান্ড।
তবে ঋষভ পন্থের ৮৮ ও ওয়াশিংটন সুন্দরের ৮৫ রানের লড়াকু ইনিংসের জেরে কিছুটা ভদ্রস্থ জায়গায় স্কোর খাড়া করতে সক্ষম হয় ভারত। যত সময় গড়াচ্ছে ততই চরিত্র বদলাচ্ছে পিচের। প্রথম দু’দিন মিলিয়ে যেখানে মাত্র আট উইকেট পড়েছিল, সেখানে দাঁড়িয়ে শুধুমাত্র তৃতীয় দিনেই দুই দলের মোট আট উইকেট পড়েছে। চতুর্থ দিনে পিচে দাঁড়িয়ে থাকা ক্রমশ কঠিন হয়েছে ব্যাটসম্যানদের পক্ষে। চতুর্থ দিনে এখনও পর্যন্ত মোট দশ উইকেট পড়েছে দুই দলের।
৫৭৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে ব্যাট করতে নেমে তৃতীয় দিনে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৫৭ রানে ইনিংস শেষ করে ভারত। শুরুতেই শুভমান গিল(২৯) ও রোহিত শর্মাকে(৬) হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হন অধিনায়ক কোহলি(১১)। মাত্র এক রানে ফিরে যান রাহানে। টপ অর্ডারের ব্যর্থতার পরেও দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন ঋষভ পন্থ ও চেতেশ্বর পূজারার ১১৯ রানের জুটি। পূজারার ১৪৩ বলে ৭৩ এবং ঋষভের মাত্র ৮৮ বলে ৯১ রানের লড়াকু ইনিংস কিছুটা স্বস্তিতে রাখে ভারতীয় দলকে। চতুর্থ দিনে ওয়াশিংটন সুন্দরের ৮৫ রান এবং অশ্বিনের ৩১ রানের ওপর ভর করে ৩৩৭ রানে প্রথম ইনিংসে শেষ করে ভারত। তবে টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানেরা প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হওয়ায় প্রবল সমালোচিত হতে হয় সমর্থকদের কাছ থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here