news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: চিন কিংবা দক্ষিণ কোরিয়ার অপেক্ষা নয়, নিজেদের টেস্টিং কিট বানাব নিজেরাই। মে মাস থেকেই শুরু হয়ে যাবে টেস্টিং কিট তৈরীর কাজ। এরপর প্রতিদিন দেশজুড়ে চলবে ১ লক্ষ টেস্ট। মঙ্গলবার এক বৈঠকে ঠিক এমনটাই জানালেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন।

মঙ্গলবার ডিপার্টমেন্ট অব বায়োটেকনোলজি ও দেশের অন্যান্য সংগঠন গুলির সঙ্গে বৈঠকের পর এক বিবৃতিতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, আমাদের বিজ্ঞানীমহল, বায়োটেকনোলজি এক্সপার্টস করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে ইতিমধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছে। পাশাপাশি জেনেটিক সিকোয়েন্সিং নিয়েও শুরু হয়েছে পড়াশোনা। এরপরই স্বাস্থ্য মন্ত্রী দাবি করেন, মে মাসের মধ্যেই RT-PCR টেস্টিং কিট বানিয়ে ফেলবে ভারত। গোটা প্রক্রিয়া ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ এর অনুমতি হাতে আসার পর থেকেই কাজ শুরু করে দেবে দেশ। ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রতিদিন ১ লক্ষ জনের করোনা পরীক্ষা করা হবে। এবং সবকিছু ঠিকঠাক চললে পরিস্থিতি সামাল দিতে খুব একটা বেগ পেতে হবে না সরকারকে।

প্রসঙ্গত বর্তমানে চীন থেকে কর্নার টেস্টিং কিট আমদানি করছে ভারত সরকার। পাশাপাশি একাধিক রাজ্য টেস্টিং কিসের জন্য ঝুঁকেছে দক্ষিণ কোরিয়ার দিকে। তবে চিনের থেকে যে ৫ লক্ষ কিট আমদানি করা হয়েছে তা থেকে আশানুরূপ ফল পায়নি সরকার। অভিযোগ উঠেছে খারাপ, অকেজো কি নিয়েও। এদিকে বিশেষজ্ঞদের দাবি, ভ্যাকসিনের অভাবে করোনা সামাল দেওয়ার একমাত্র উপায় প্রচুর টেস্টিং। ফলে টেস্টিং এর পরিমাণ আরও বাড়াতে উদ্যোগী সরকার। বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় ৪০ থেকে ৫০ হাজার টেস্ট করা হচ্ছে গোটা দেশজুড়ে। মঙ্গলবার পর্যন্ত মোট সাত লক্ষ টেস্ট হয়েছে বলে জানা গেছে সরকারিভাবে। তবে শীঘ্রই এই সংখ্যাটা প্রতিদিন এক লক্ষ ছুঁয়ে ফেলবে বলে আশাবাদী কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here