কাশ্মীরের ভাল দেখতে পারেন না ইমরান, অভিযোগ আমেরিকায় ভারতীয় রাষ্ট্রদূতের

0
607

মহানগর ওয়েবডেস্ক: হাউস্টেন হাওডি মোদী অনুষ্ঠানের আগে আমেরিকার ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হর্ষ শ্রীঙ্গলা একহাত নিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে৷ তাঁর স্পষ্ট অভিযোগ, নিজেকে কাশ্মীরের মসিহা বললেও আসলে কাশ্মীরিদের ভাল চান না ইমরান খান৷ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর কড়া সমালোচনা করে নিউইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় মতামত লিখলেন ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হর্ষ শ্রীঙলা। দিন কয়েক আগেই ওই পত্রিকায় ভারতের ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদের সিদ্ধান্তর সমালোচনা করেছিলেন ইমরান। তার পাল্টা জবাব হিসেবেই সম্প্রতি প্রকাশিত হল এই লেখনী।

চলতি বছরের ৫ আগস্ট মোদী সরকার জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা লোপ করেছে৷ তারপর থেকেই কাশ্মীরকে আন্তর্জাতিক ইস্যু করতে আদাজল খেয়ে আসরে নেমে পড়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ এমনকী তিনি নিজেই কাশ্মীরিদের পরিত্রাতা হিসাবে নিজেকে ঘোষণা করেছেন৷ তাঁর দাবি, ‘ভারতের সিদ্ধান্ত অবৈধ’। তবে ভারতও সাফ জানিয়ে দেয়, জম্মু ও কাশ্মীর দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়। ভারত অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে কঠোর অবস্থানের পর দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক পাক অধিকৃত কাশ্মীরের দখল নিতেও মরিয়া। বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করও পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিজেদের দখলে নেওয়ার কথা বলেছেন। এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তান ভারতের ওপর চাপ তৈরিতে আন্তর্জাতিক মহলে দরবার করেও ব্যর্থ। আমেরিকায় গিয়ে ইমরান খান নালিশ করেছেন, ভারত অবৈধভাবে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করেছে এবং এতে জম্মু-কাশ্মীরের মানুষের জীবনে সঙ্কট তৈরি হয়েছে। ইমরানের এই অভিযোগ খণ্ডন করে তাঁকে কার্যত একহাত নিয়েই এবার নিউইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় মত প্রকাশ করলেন ভারতীয় দূত হর্ষ শ্রীঙলা।

ভারতীয় দূত শ্রীঙ্গলার সোজা বক্তব্য, ‘পাকিস্তান সন্ত্রাসকে রাজনৈতিক উপাদান হিসেবে ব্যবহার করে। সারা বিশ্বে সন্ত্রাস হামলায় জড়িত জঙ্গিদের ঠাই পাকিস্তান। ওসামা বিন লাদেনও তার জীবনের শেষ কয়েকটা দিন ইসলামাবাদে কাটিয়েছে। সুতারাং, পাকিস্তান যে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল ও সেখানকার অর্থনৈতিক উন্নয়নের বিরোধিতা করবে, এটাই স্বাভাবিক।’পাশপাশি তিনি মনে করেন ৩৭০ ধারা লোপ মোদী সরকারের ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত৷ তাঁর কথায়, ‘ভারত ঐতিহাসিক ভুলের সংশোধন করল।’একইসঙ্গে পাক প্রধানমন্ত্রীর কড়া সমালোচনা করে শ্রীঙ্গলার সাফ কথা, ‘নিজেদের কায়েমী স্বার্থ থেকেই জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখের উন্নতি চাইছে না পাকিস্তান।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here