ডেস্ক: দিন কয়েক আগেই রাশিয়ায় বিশ্বকাপ খেলতে গিয়ে মানবিকতা এবং পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার ক্ষেত্রে অনন্য নজির সৃষ্টি করে এসেছেন জাপানি ফুটবলার এবং সমর্থকরা।বিশ্বকাপে তাঁদের দেশের প্রতিটি খেলার পর সমগ্র স্টেডিয়াম পরিষ্কার করে দিয়েছিলেন তাঁরা, এমন কি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পরেও সমগ্র ড্রেসিংরুম পরিষ্কার করে নজির সৃষ্টি করেছিলেন জাপানি ফুটবলাররা। তার সাথে আয়োজকদের জন্য চিরকুটে লিখে রেখে এসেছিলেন ‘থ্যাংক ইউ।” এটা জাপানের চিত্র, আর অন্য দিকে ভারত। আন্তর্জাতিক মঞ্চে খেলতে নেমে দেশের নাম ডুবিয়ে দিলেন এদেশেরই ক্রীড়াবিদরা।

অস্ট্রেলিয়ার গোল্ডকোস্টে সম্প্রতি আয়োজন করা হয়েছিল ২০১৮ কমনওয়েলথ গেমস।  আর সেখানেই রীতিমত তান্ডব করে এলেন ভারতীয় খেলোয়াড়রা। গেমস ভিলেজের জিনিসপত্র রীতিমতো ভাংচুর করে ফিরেছিলেন বেই ভারতীয় খেলোয়াড়রা। আর যে কারণে, ভারতীয় অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনকে প্রায় ৭৪ হাজার টাকা জরিমানার নির্দেশ দিল এই কমনওয়েলথ গেমসের আয়োজকরা।

আর আইওএ কিন্তু এবার পাল্টা শাস্তি ঘোষণা করেছে ন্যাশনাল স্পোর্টস ফেডারেশনগুলির উদ্দেশ্যে। আইওএ-র তরফে বলা হয়েছে যে, জরিমানার অন্তত ৯০ শতাংশ টাকাই তোলা হবে ন্যাশনাল ফেডারেশনগুলির থেকেই। সূত্রের খবর, ইন্ডিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নরেন্দ্র বাত্রা ই-মেল করে সেক্রেটারি জেনারেল রাজীব মেহতাকে জানিয়েছেন “মোট ৭৩,৯৮৮ টাকা জরিমানা করা হয়েছে আমাদের। সত্যিই, আমাদের জন্য অত্যন্তই লজ্জাজনক পরিস্থিতি এটা। কিন্তু এই জরিমানার অর্থের কমপক্ষে ৯০ শতাংশই আমরা তুলব জাতীয় ফেদারেশনগুলোর কাছ থেকেই। আর তার জন্য, সংশ্লিষ্ট ক্রীড়াবিদদের সাথে কথা বলুক জাতীয় ফেডারেশন। প্রয়োজন হলে জরিমানাও করুক তাঁদের। আন্তর্জাতিক মঞ্চে কিছুতেই মেনে নেওয়া যায় না এই ধরনের নক্কারজনক কুকর্ম। তএ এর আগেও কিন্তু সামনে এসেছিল এমনই কুকর্মের নিদর্শন। তাই বার বার কাউকে ক্ষমা করা যায় না।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here