kolkata bengali news

ডেস্ক: চিনুক, হাউৎজারে ইতিমধ্যেই সমৃদ্ধ হয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। হাউৎজার বন্দুক যেভাবে সেনার শক্তি বাড়িয়েছে, একইভাবে চিনুক নির্ভরতা বাড়িয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনার। এবার পালা ভারতীয় নৌবাহিনীর। কলকাতার গার্ডেনরিচ শিপবিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়র্স লিমিটেড (জিআরএসই) এই প্রথম প্রথম ১০০ টি যুদ্ধ জাহাজ তৈরি করল ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য। যার মধ্যে শনিবারই একটি মডেল এল নৌবাহিনীর কাছে।

ল্যান্ডিং ক্র্যাফট ইউটিলিটি (এলসিইউ) এল-৫৬। কলকাতার গার্ডেনরিচ শিপবিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়র্স লিমিটেড বা জিআরএসই যে যুদ্ধজাহাজগুলি তৈরি করেছে, তার ১০০ তম মডেল এটি। গতকাল অর্থাৎ শনিবার এই মডেলটি সদস্য হল ভারতীয় নৌবাহিনীর। সূত্রের খবর, অত্যাধুনিক ইন্টিগ্রেটেড ব্রিজ সিস্টেমযুক্ত জাহাজ এটি।

জিআরএসই কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আধুনিকমানের এই যুদ্ধজাহাজটির ২২০ জন সেনা বহনের ক্ষমতা রয়েছে। পাশাপাশি, এতে রয়েছে দেশের তৈরি ২টি সিআরএন ৯১ বন্দুকও। তারা আরও জানাচ্ছে, এই যুদ্ধজাহাজটি ৬৩ মিটার লম্বা এবং ১১ মিটার চওড়া এবং ১৫ নট দ্রুততার সঙ্গে এগোনোর ক্ষমতাও রয়েছে এই ল্যান্ডিং ক্র্যাফট ইউটিলিটি (এলসিইউ) এল-৫৬-এর।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের শেষেই সেনাবাহিনীর হাতে চলে আসবে এই এম ৭৭৭ হাউৎজার বন্দুক। মহীন্দ্রার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে সেই বন্দুক তৈরি করেছে বিএই সিস্টেম। পাশাপাশি, কিছুদিন আগেই, বায়ুসেনার ১২ উইং ঘাঁটিতে প্রায় ১৫টি হেভি–লিফট হেলিকপ্টার ‘চিনুক’কে বায়ুসেনায় সংযোজন করেন বায়ুসেনা প্রধান বিএস ধানওয়া। সবই ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’র ফসল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here