ameet gaikwad karnataka doctor 650x400 51516474203
ameet gaikwad karnataka doctor 650x400 51516474203

ডেস্ক: সমাজে ছাত্রচরিত্র গঠনে প্রধান ভূমিকাই থাকে শিক্ষক, অধ্যাপকদের। কিন্তু সেই কাজ ছেড়ে তারাই যদি উন্মাদের মতো কাণ্ড ঘটাতে শুরু করেন তবে এর পরিণতি যে কী পরিমাণ মারাত্মক হতে পারে তার উদাহরণ দিলেন কর্ণাটকের খোদ এক ৩৭ বছরের অধ্যাপক।

পেশায় অধ্যাপনা তাঁর কাজ হলেও নিজের নেশা হিসাবে গাড়িতে আগুন ধরানোই বেছে নিয়েছিলেন তিনি। শুনতে অবাক মনে হলেও এমন অদ্ভুত কাণ্ড করেই শিরোনামে উঠে এসেছেন কর্ণাটকের মেডিক্যাল কলেজের অধ্যাপক অমিত গায়কোয়াড। এই ডাক্তার অধ্যাপকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিগত এক সপ্তাহে ২৫টি গাড়িতে আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছেন তিনি। কর্নাটকের বেলগাম ও গুলবার্গা এলাকায় পর পর গাড়িতে আগুন লাগার ঘটনায় বেশ চমকেই গিয়েছিলেন এলাকার বাসিন্দারা। কিন্তু কী করে ঘটছে এই কাণ্ড কেউ বুঝে উঠতে পারছিলেন না। শেষ পর্যন্ত ডাক্তার বাবুর এই কীর্তি নজরে আসে এক নিরাপত্তারক্ষীর। রাত প্রায় সাড়ে তিনটে নাগাদ পেট্রোল এবং দেশলাই হাতে গাড়ির কাছে ঘোরাঘুরি করছিলেন তিনি। হেলমেট পরে একটি গাড়িতেও ঢুকতে চেষ্টা করেন অমিত। সন্দেহ হতেই অভিযুক্ত চিকিৎসককে হাতেনাতে পাকড়াও করে প্রতিবেশীদের ডেকে আনেন সেই নিরাপত্তারক্ষী। খবর দেওয়া হয় পুলিশেও। পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

পুলিশ জানিয়েছে, বেলাগাভি ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সে প্যাথলজি বিভাগের অধ্যাপক অমিত গায়কোয়াড় মানসিক অসুস্থ। কীভাবে তিনি এই কাজ করতেন জানতে চাওয়া হলে অভিযুক্ত বলেন, প্রথমে কর্পূর জ্বালিয়ে গাড়ির এয়ার ভেন্টের কাছে ধরতেন। ক্রমে সেই আগুন চলে যেত ইঞ্জিনে। কিন্তু কেন তিনি এভাবে একের পর এক গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছিলেন সেই উত্তর খুঁজে পায়নি পুলিশ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here