ডেস্ক: যোগীর রাজ্যে ডিভাইডারের রং গেরুয়া করার পর এবার পালা ভারতীয় রেলের। নীল সাদা রং বদলে এবার গেরুয়া করার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র সরকার। চলতি মাসেই এই রং বদল চোখে পড়বে ভারতীয় রেলের যাত্রীদের। ডার্ক-ব্লু রং এর পরিবর্তে মেল ও এক্সপ্রেসের কামরাগুলি সেজে উঠবে গেরুয়া বর্ণে। এই গৈরিকীকরণের কাজ তড়িঘড়ি শেষ করার জন্য সরকারের তরফে কাজে আনা হয়েছে বাড়তি গতি।

তবে হঠাৎ করে এই রং বদলের সিদ্ধান্ত কেন নিল কেন্দ্র সরকার? রেল কর্তারা জানিয়েছেন, ১৯৯০ সালে ইঁটে লাল রংকে পাল্টে ডার্ক-ব্লু করা হয় মেল ও এক্সপ্রেস ট্রেনগুলোকে। বর্তমানে এই নীল সাদা চোখের শান্তি দিচ্ছে না। আর তাই নিল-সাদা পাল্টে গেরুয়া করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। দিল্লি-পাঠানকোট এক্সপ্রেস সহ ১৬টি কোচে চলছে এই গৈরিকীকরণ পর্ব। চলতি মাসেই তা প্রকাশ্যে আসবে। আসতে আসতে প্রায় ৩০ হাজার কোচকে সাজানো হবে এই ভাবে। তবে রাজধানী, শতাব্দী, দুরন্ত এক্সপ্রেসের রঙের কোনও পরিবর্তন করা হবে না।

সরকারের তরফে বলা হয়েছে শুধু কোচের রং পরিবর্তন নয়, স্বাচ্ছেন্দ্যেরও যাতে কোনও খামতি না থাকে তার যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিমানের ন্যায় ট্রেনের শৌচালয়েও বসানো হবে ভ্যাকুউম বায়োটয়লেট। প্রায় ১ লক্ষ ৩৬ হাজার ৯৬৫ টি বায়োটয়লেট বসতে চলেছে ট্রেনগুলিতে। এরজন্য কোচ পিছু খরচ পড়ছে ১ লক্ষ টাকা। এই খরচ সামলাতে রেলের শৌচালয়ে জলের ব্যবহার কমিয়ে সেই অর্থ বিকল্প হিসাবে এই খাতে খরচের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রেল কর্তারা। তারা আরও জানান, ট্রেনের স্বাচ্ছন্দ্যতা বাড়াতে বায়োটয়লেটের পাশাপাশি আলো, সিট, মোবাইল চার্জার ইত্যাদির ব্যবস্থা করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here