pic-kolkata bengali news

ডেস্ক: প্রতি দিনই একটু একটু করে বেড়ে মাত্রা ছাড়াচ্ছে পেট্রোল ডিজেলের দাম। যার জেরে দেশ জুরে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়েই চলেছে। কমছে টাকার মূল্য। যার ফলে বেজায় সমস্যার মুখে পড়েছে দেশ। পেট্রোপণ্যের চড়া দামের ফলে এদিকে মাথায় হাত পড়েছে বাস ও অটোচালকদের মাথায়। তারই মাঝে এবার অর্থনৈতিক সংকটের জন্য বর্ধিত তেলের দামকে দুষলেন কেন্দ্রীয় পরিবহণমন্ত্রী নীতিন গড়কড়ি। যদিও সাধারণ মানুষ এই তেলের দাম বৃদ্ধি নিয়ে বারবারই কেন্দ্রের দিকে আঙুল তুলছে। এদিকে খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীই তেলের দাম বৃদ্ধি নিয়ে তোপ দাগলেন।

বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম তেল আমাদানিকারক দেশ হল ভারত। সেই ভারতের ৮০ শতাংশ জ্বালানী তেলের চাহিদা মেটানো হয় বিদেশ থেকে তেল আমদানি করে। কিন্তু আন্তর্জাতিক বাজারে ইতিমধ্যেই জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধির ফলে বেশ টালবাহানার মধ্যে পড়েছে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম সংস্থা। উল্লেখ্য, এই বছরের শুরু থেকেই বিদেশী মুদ্রা ডলারের সাপেক্ষে প্রায় ১৩ শতাংশ হারে কমেছে ভারতীয় মুদ্রার দাম। এক ব্যারেল অপরিশোধিত তেলের দাম ঘোরাফেরা করছে প্রায় ৮৫ ডলারের কাছে। ফলে পাল্লা দিয়ে জ্বালানী তেলের আমাদানি খরচও বাড়ছে। তাতেই সাধারণের পকেট গড়ের মাঠ করে কিনতে হচ্ছে পেট্রোল ডিজেল। তার ফলেই সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ জমছে। এদিকে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির তরফে জ্বালানী তেলের দামের উপর আড়াই টাকা ভ্যাট কমানোর নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি রাজ্যগুলিকেও এই ভ্যাট কমানোর আর্জি জানিয়েছেন, যাতে রাজ্যবাসীর কিছুটা হলেও স্বস্তি মেলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here