orissa news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: কাজের জন্যই গোটা দেশে সুনাম তাঁর। আর প্রয়োজনের সময় কাজ করে দেখানো তিনিই শেখাচ্ছেন নতুন করে। বিশ্ব যখন বিগত কয়েক শতাব্দীর সবথেকে খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, তখন আলাদাভাবে ভেবে কাজ করে দেখালেন ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক। পশ্চিমবঙ্গের এই প্রতিবেশী রাজ্যই দেশের প্রথম এবং বৃহত্তম করোনা চিকিৎসার হাসপাতাল গড়ে তুলতে চলেছে।

সংবাদ সূত্রে খবর, অত্যাধুনিক মানের এই হাসপাতালটি আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কাজ শুরু করে দেবে। দেশে যেভাবে হুহু করে করোনা আক্রান্তদের সংখ্যা বাড়ছে, সেই সময় এই ধরনের হাসপাতালই যে অন্যতম প্রয়োজন তা বুঝেছেন নবীন পট্টনায়েক। সেই মতো যুদ্ধকালীন তৎপরতায় এই হাসপাতাল তৈরি হচ্ছে। ১৫ দিন পর থেকেই সেখানে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা ও উপসর্গ যাদের রয়েছে তাদের কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করা হবে। এই হাসপাতাল তৈরি হলে দেশের অন্যান্য রাজ্যের কাঁধের থেকেও বোঝা যে কিছুটা হালকা হবে তা এখন থেকেই বলে দেওয়া যায়।

এই হাসপাতাল তৈরির জন্য ওড়িশা সরকার, কর্পোরেট সংস্থা ও মেডিক্যাল কলেজগুলোর চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। ওড়িশায় আপাতত মাত্র দুজনের শরীরে করোনা ভাইরাস মিললেও প্রস্তুতির কোনও খামতি রাখছেন না নবীন পট্টনায়েক। ইতিমধ্যেই তিনি স্বাস্থ্যকর্মীদের চারমাসের অগ্রিম বেতন দিয়ে দিয়েছেন। এবার কার্যত চোখে আঙুল দিয়ে দেখাচ্ছেন, অসম্ভব কিছুই নয়। চিন পারলে, আমরাও পারি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here