ডেস্ক: ইঞ্জিনে ত্রুটি থাকার কারণে আটকে গেল ইন্ডিগো বিমান সংস্থার ৪৭টি উড়ান। ইন্ডিগো ছাড়াও বাতিল করা হয়েছে গো এয়ার সংস্থার তিনটি বিমান। এই মুহূর্তে দেশজুড়ে রমরমিয়ে উড়তে থাকা ইন্ডিগো বিমানেই সফর করেন বেশিরভাগ যাত্রীরা। এক ধাক্কায় এতগুলি উড়ান বাতিল হয়ে যাওয়ায় বিপদে পড়েছেন বহু যাত্রী।

জানা গিয়েছে, ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশন(DGCA)-র নিষেধাজ্ঞার জেরে বাতিল করতে হয়েছে এতগুলি বিমান। প্র্যাট অ্যান্ড হুইটনি ইঞ্জিনচালিত ইন্ডিগো-র ৮টি এয়ারবাস এ৩২০ নিও বিমানের উড়ানে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে DGCA। মনে করা হচ্ছে গতকাল কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশের বিমানটি ভেঙে পড়ার পরই যে বিমানগুলির মধ্যে প্রযুক্তিগত খামতি ছিল তা সারিয়ে ফেলতে তৎপরতার সঙ্গে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। যাত্রী সুরক্ষার সঙ্গে কোনও ভাবেই ঝুঁকি নিতে চাইছে না কর্তৃপক্ষ। বাতিল হয়েছে দিল্লি, মুম্বই, চেন্নাই, কলকাতা, হায়দরাবাদ, বেঙ্গালুরু, পটনা, শ্রীনগর, ভুবনেশ্বর, অমৃতসর, শ্রীনগর ও গৌহাটিগামী একাধিক বিমান।

উল্লেখ্য, গতকাল আহমেদাবাদ থেকে লখনউ গামী একটি বিমানে জরুরি অবতরণ করে। জানা যায়, বিমানটির ইঞ্জিনে বিভিন্ন সমস্যা দেখা যাওয়ার কারণে জরুরি অবতরণ করে এটি। তারপরই DGCA-র আধিকারিকরা পরীক্ষা চালিয়ে জরুরি ভিত্তিতে ১১টি উড়ান বাতিল করা হয়। ইন্ডিগোর বিমানগুলি বাতিল হওয়ার ফলে কয়েকহাজার যাত্রী আপাতত বিমানবন্দরে আটকে রয়েছেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here