নিজস্ব প্রতিবেদক, মালদা: তৃণমুল কর্মী আনারুল হককে মারধরের অভিযোগ উঠল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার পুকুরিয়া থানার শ্রীপুর এলাকায়। গুরুতর জখম অবস্থায় ওই তৃণমূল কর্মী বর্তমানে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। যদিও এই ঘটনায় কংগ্রেসের কোন যোগ নেই বলেই দাবি জেলা কংগ্রেস নেতৃত্বের।

গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছিল মালতি পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের আস্কাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা আনারুল হক। পঞ্চায়েত নির্বাচনে গ্রাম পঞ্চায়েতে জয় লাভ করে তৃণমূল কংগ্রেস। এরপর থেকেই আনারুল কে হুমকি দিচ্ছিল স্থানীয় কয়েকজন কংগ্রেস কর্মী বলে অভিযোগ। শেষে বৃহস্পতিবার শ্রীপুর বাসস্ট্যান্ডে তাকে দেখতে পেয়ে হামলা চালায় কয়েক জন দুষ্কৃতী। হামলার সময় ব্যাপক মারধর করা হয় তাকে। এমনকি লোহার রড দিয়ে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয় তার। উত্তেজনা দেখে আশপাশ থেকে মানুষজন ছুটে আসলে অভিযুক্তরা ঘটনাস্থল থেকে সেই সময় পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে প্রথমে মালতিপুর হাসপাতালে এবং পরে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। ঘটনায় জেলা তৃণমূলের দাবি এই ঘটনায় স্থানীয় কংগ্রেস কর্মীরা যুক্ত রয়েছে। যদিও কংগ্রেস কর্মীদের যুক্ত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জেলা কংগ্রেস নেতৃত্ব। গোটা ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে পুকুরিয়া থানায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here