kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, ক্যানিং: লকডাউনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব উত্তপ্ত হয়ে উঠল ক্যানিং। এলাকায় চলে মুড়ি-মুড়কির মতো বোমাবাজি ও গুলি। যুব তৃণমূলের ছোড়া গুলিতে নিহত হন এক আদি তৃণমূল কর্মী। এমনই ঘটনা ঘটেছে ক্যানিং থানার হাটপুকুরিয়া অঞ্চলে। নিহত তৃণমূল কর্মীর নাম ইদ্রিস আলি মণ্ডল (৩২)। জানা গিয়েছে, স্থানীয় ক্লাব থেকে বাড়ি ফেরার পথে ইদ্রিস আলির পথ আটকে দাঁড়ায় কয়েকজন যুব তৃণমূল কর্মী। এরপর  ইদ্রিসকে লক্ষ্য করে গুলি ও বোমা ছুড়তে থাকে তারা। তাদের ছোড়া গুলি লাগে তার পায়ে।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে তড়িঘড়ি নিয়ে আসা হয় ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক তাকে স্থানান্তরিত করেন কলকাতা চিত্তরঞ্জন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল।  সেখান থেকে তাকে রেফার করা হয় নীলরতন হাসপাতাল। বৃহস্পতিবার রাতে মৃত্যু হয় ইদ্রিস আলির। ঘটনা শোকের ছায়া নেমে আসে পরিবারে তার পরিবারে। এলাকা উত্তপ্ত থাকায় ঘটনাস্থলে আসে ক্যানিং থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। তবে কে কারা তাকে খুন করেছে তা এখনও জানা যায়নি। পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

উল্লেখ্য, ক্যানিং ও বাসন্তী এলাকায় তৃণমূলের যুব আর আদি গোষ্ঠীর লড়াইয়ে বারবার উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। মুড়ি-মুড়কির মতো বোমা-গুলি চলতে থাকে। বারবার মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। দলের শীর্ষ নেতৃত্ব লাগাতার চেষ্টা করেও দলের এই কোন্দল কোনও ভাবে আটকাতে পারছে না। মূলত, কাদের হাতে থাকবে এলাকার নিয়ন্ত্রণ- তা নিয়েই দলের দুই গোষ্ঠীর এই লড়াই জারি আছে ক্যানিংয়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here