ডেস্ক: আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলিতে সহজ জয় পেল ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। ক্যামেরুনকে ১-০ গোলে হারাল সেলেকানরা। ব্রাজিলের হয়ে একমাত্র গোল রিচার্লিসনের। অন্যদিকে মেক্সিকোকে ২-০ ব্যবধানে পরাস্ত করে। গোল করেন মাউরো ইকার্ডি ও পাওলো দিবালা।

ক্যামেরুনের বিরুদ্ধে এদিন পছন্দের ৪-৩-৩ ছকে দল সাজিয়েছিলেন ব্রাজিল কোচ তিতে। আপ ফ্রন্টে নেইমার, ফির্মিনো ও উইলিয়ান। এদিন রিজার্ভ বেঞ্চের বেশ কিছু ফুটবলারদের সুযোগ দিয়েছিলেন তিতে। সারা ম্যাচে দাপটের সঙ্গেই খেলল পাঁচ বারের বিশ্বজয়ীরা। গোটা ম্যাচে ৬১ শতাংশ বলের দখল ছিল নেইমার, ফির্মিনোদের দখলে। প্রতিপক্ষ গোল লক্ষ্য করে মোট ২৩ টি শট নিয়েছিলেন সেলেকানরা।

শুরু থেকেই ম্যাচের দখল নেয় ব্রাজিল। একের পর এক ব্রাজিল আক্রমণে তখন দিশেহারা অবস্থা ক্যামেরুনের। তবে শত চেষ্টার পড়েও কিছুতেই গোলের দেখা পাচ্ছিলেন না ব্রাজিলিয়ানরা। এরই মাঝে পায়ের পেশিতে টান ধরায় মাঠের বাইরে চলে যান সুপারস্টার নেইমার। তাঁর এদিনের চোট চিন্তায় রাখবে তিতে ও তাঁর ক্লাব পিএসজিকে। তবে গোলের খোঁজে অনবরত চাপ বাড়িয়ে জেতে থাকে দক্ষিণ আমেরিকান জায়ান্টসরা। ৪৫ মিনিটে অবশেষে গোলের সন্ধান পায় ব্রাজিল। উইলিয়ানের কর্নার থেকে দুরন্ত হেডে গোল করেন সুপারসাব রিচার্লিসন। তবে এরপরেও গোলের খোঁজে চাপ বাড়ালেও ব্যবধান আর বাড়াতে পারেনি তিতে ব্রিগেড।

ব্রাজিলের পাশাপাশি জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনাও। শক্তিশালী মেক্সিকোর বিরুদ্ধে ৪-৩-৩ ছকেই দল নামিয়েছিলেন আর্জেন্টাইন কোচ স্কালোনি। আক্রমণভাগে লামেলা, ইকার্ডি ও রদ্রিগো দে পল। তবে এদিন খুব একটা ছন্দে ছিলেননা আর্জেন্টাইনরা। মাত্র ৪৩ শতাংশ বলের দখল ছিল তাঁদের পায়ে। যদিও ম্যাচের ২ মিনিটের মধ্যেই এগিয়ে যায় নীল-সাদা ব্রিগেড। লামেলার পাস থেকে দুরন্ত গোল করে যান ইকার্ডি। এরপর সারা ম্যাচ দুই দলই তুল্যমূল্য লড়াই চালায়। ৮৭ মিনিটে আর্জেন্টিনার জয় নিশ্চিত করেন পাওলো দিবালা। অ্যাসিস্ট করেন সিমিয়নে। মেসিকে ছাড়াই মেক্সিকোর মতো শক্তিশালী দলের বিরুদ্ধে জয়ে স্বভাবতই খুশি আর্জেন্টাইন কোচ স্কালোনি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here