মহানগর ওয়েবডেস্ক: আইপিএল যখন শুরু হয়, তখন সব দেশের ক্রিকেটাররাই এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারতেন। পাকিস্তানি ক্রিকেটারদেরও আইপিএলে খেলা নিয়ে কোনও সমস্যা ছিল না। কিন্তু ২৬/১১ -র পর থেকে পরিস্থিতি আমূল বদলে যায়। দুই দেশের রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক সম্পর্কের শীতলতা প্রভাব ফেলে খেলাধুলায়। আইপিএলে ব্রাত্য হয়ে যান পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা।

কিন্তু সম্প্রতি এই আইপিএল নিয়েই স্মৃতির সাগরে ডুব দিলেন পাক ফাস্ট বোলার উমর গুল। আইপিএলের প্রথম সিজনে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছিলেন তিনি। ‘আমরা খুব মজা করতাম। এই প্রথম ক্রিকেটের প্রাইভেট লিগ হচ্ছিল। ২০০৭ বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি ছিলাম আমি। তবে আইপিএলের নিলামে বেশ শেষদিকেই দল পাই।’

‘প্রথম ম্যাচেই ব্র্যান্ডন ম্যাককালাম ১৫০ রানের ইনিংস খেলেছিল। খুব উত্তেজিত ছিলাম আমরা। সেও সময় অনেক পাকিস্তানি খেলোয়াড় আইপিএলে খেলতো। আইপিএলটা অনেকটা একটা বড় উৎসবের মতো’, এক সাক্ষাৎকারে বলেন উমর।

‘সেই সময় প্রত্যেক ম্যাচের পর হোটেলে অনুষ্ঠান হতো। বিশেষ করে কেকেআরের ক্ষেত্রে তো হতোই। মালিকের নাম শাহরুখ খান। ম্যাচ হারি বা জিতি, খেলার পর স্পনসর আর নানা ব্র্যান্ডের সঙ্গে ফটোশুট হতো। শেষে হোটেলে ফিরে চলত পার্টি। আমার জন্য আইপিএল অনন্য এক অভিজ্ঞতা ছিল। সেই সময় বয়স অল্প ছিল। অনেকের থেকে অনেক কিছু শিখতে পেরেছিলাম। আমাদের দলে রিকি পন্টিংয়ের মতো খেলোয়াড় ছিল। বড় বড় খেলোয়াড়রা কীভাবে জীবনযাপন করে, তা জানতে পেরেছিলাম’, বলেন উমর গুল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here